ফুঁসছে তিস্তা, আতঙ্কে উত্তর!

।। সানন্দা বসু ।।

টানা বৃষ্টিতে বাড়ছে তিস্তার জল । সিকিমে টানা বৃষ্টির জেরে ফুলে ফেঁপে উঠেছে তিস্তা ৷ নদীর জল ব্যাপক হারে বেড়ে যাওয়ায় কালিম্পংয়ের তিস্তা বাজার ও মাল্লির বিস্তীর্ণ এলাকায় বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে । বুধবার মাঝরাত থেকেই ওই এলাকায় নদীর জল ঢুকতে শুরু করে ।

গত অক্টোবর মাসে সিকিমের হড়পা বান

এই পরিস্থিতিতে আতঙ্কে প্রাণ বাঁচাতে অনেকে ঘরবাড়ি ছেড়ে পালাচ্ছেন । কারণ তাঁদের আজও তাড়া করে বেড়াচ্ছে গত অক্টোবর মাসে সিকিমের হড়পা বানের স্মৃতি । গত বছরের অক্টোবরে সিকিমে বাঁধ ভেঙে নেমে আসে ভয়াবহ হড়পা বান । জলের তোড়ে ভেসে যায় প্রায় আশিটি বাড়ি । বহু মানুষের প্রাণ যায় ৷ হড়পা বানে তছনছ হয়ে গেছিল সিকিম । এর প্রভাব পড়েছিল পশ্চিমবঙ্গের পার্বত্য এলাকাতেও । সিকিমের এই হড়পা বানে অন্তত ১৪ জনের মৃত্যু হয় । নিখোঁজ হয়ে গিয়েছিলেন ১০২ জন । এর মধ্যে ছিলেন ২২ সেনা জওয়ানও ।

সেই ঘটনার পর কয়েক মাস কাটতে না-কাটতেই বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ফের একই আতঙ্ক গ্রাস করেছে তিস্তা বাজার ও মাল্লি এলাকাবাসীকে । বহু মানুষ ঘর ছেড়ে প্রাণ বাঁচাতে অন্যত্র সরে গিয়েছেন । টানা প্রবল বৃষ্টির জেরে উত্তর সিকিমের লাচুং এলাকায় ধস নেমেছে ৷ বৃহস্পতিবার লাচুংয়ের পার্কসাঙ্গ থেকে তিনজনের দেহ উদ্ধার করা হয়েছে ৷ এই ঘটনার পরই জরুরিকালীন বৈঠক ডাকেন উত্তর সিকিমের জেলাশাসক । তবে মৃতদের নাম জানা যায়নি । রাজ্য সরকারের তরফে কিছু আর্থিক ক্ষতিপূরণ মিলেছে ।সূত্রের খবর, টানা বৃষ্টির কারণে জলস্ফীতি হয়েছে তিস্তা নদীতে। সেই কারণেই বন্যা পরিস্থিতি লাচুংয়ে ৷ নদীর পাশে থাকা বেশকিছু বাড়ি ভেসে গিয়েছে জলের স্রোতে ৷ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে রাস্তাঘাট । সিংথাম ও রঙপোতে তিস্তা নদীর জলস্তর লাল সতর্কতা পেরিয়ে গিয়েছে ৷ অন্যদিকে তিস্তার জলস্তর বেড়ে যাওয়ায় ওই এলাকা প্লাবিত হওয়ার কারণে বন্ধ রয়েছে দার্জিলিং ও কালিম্পংগামী সড়ক ।

নিউজ টাইম চ্যানেলের খবরটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন।
Inform others ?
Share On Youtube
Show Buttons
Share On Youtube
Hide Buttons
Wordpress Social Share Plugin powered by Ultimatelysocial
Facebook
YouTube