সৌমিত্র খাঁয়ের কনভয় আটকে বিজেপি কর্মীদের উপর হামলা! ‘প্রি-প্ল্যান্ড‌ চক্রান্ত’, মন্তব্য সুজাতার

বাঁকুড়ায় সৌমিত্র খাঁয়ের গাড়ি, কনভয় আটকে বিজেপি কর্মীদের মারধরের অভিযোগ উঠল । সোমবারের এই ঘটনায় আহত হন সোনামুখী বিধানসভার বিজেপি কনভেনর সহ একাধিক কর্মী । অভিযুক্ত ঘাসফুল শিবির । পাত্রসায়র থানার দ্বারস্থ হন বিজেপি নেতা সৌমিত্র খাঁ । এদিন উচ্চ গলায় পুলিশকে হুঁশিয়ারিও দিতে শোনা যায় সৌমিত্রকে । পাল্টা অভিযোগ তৃণমূলেরও । তাঁদের দাবি, সৌমিত্র খাঁ নিজেই কর্মীদের মার খাইয়েছে ফুটেজ নেওয়ার জন্য । ঘটনায় চাঞ্চল্যকর মন্তব্য সুজাতার ।

বিজেপির অভিযোগ গতকাল পাত্রসায়র থানার বেলুট গ্রামে বিজেপির ভোট প্রচার এবং দলীয় একটি কর্মসূচি হওয়ার কথা ছিল । সেখানে যোগদান করার জন্য যাচ্ছিলেন বিষ্ণুপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী সৌমিত্র খাঁ এবং সোনামুখী বিধানসভার বিজেপি বিধায়ক দিবাকর ঘরামী । অভিযোগ ওঠে, হঠাৎ করেই বেলুট গ্রামে ঢুকতেই বেলুট রসুলপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রাক্তন প্রধান তথা অঞ্চল সভাপতি তাপস বারি বিজেপি প্রার্থী সৌমিত্র খাঁয়ের গাড়ি ও কনভয় আটকে হামলা চালান ।

আরও জানা যায় এরপরই দু’পক্ষের মধ্যে ব্যাপক মারপিটের ঘটনা ঘটে । বিজেপির অভিযোগ তাঁদের সোনামুখী বিধানসভার বিজেপি কনভেনর তাপস মিত্র সহ বেশ কয়েকজন বিজেপি কর্মী আহত হয় । তাঁদের নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে । এর পরেই ঘটনাস্থলে পাত্রসায়ের থানার পুলিশকর্মীদের দেখে রীতিমতো ক্ষুব্ধ হয়ে যান বিজেপি প্রার্থী সৌমিত্র খাঁ । উচ্চ গলায় চরম হুঁশিয়ারি দিতে থাকেন পুলিশকে ।

এরপর ঘটনাস্থল থেকে বেরিয়ে দলীয় কর্মীদের এবং আহতদের সাথে নিয়ে সোজা পাত্রসায়ের থানায় গিয়ে হাজির হন সৌমিত্র খাঁ । থানায় দায়িত্বপ্রাপ্ত পুলিশ অফিসারকে সমস্ত ঘটনাটা তিনি মৌখিকভাবে জানান । মেইল মারফত জানানো হয় বাঁকুড়া জেলার পুলিশ সুপারকেও ।

সমগ্র ঘটনা নিয়ে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব জানায়, সৌমিত্র খাঁ- দলবল নিয়ে বেলুট রসুলপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের অঞ্চল সভাপতি তথা প্রাক্তন প্রধানকে মারধর করেছেন । তৃণমূল প্রার্থী সুজাতা মন্ডল সৌমিত্র খাঁয়ের বিরুদ্ধে চাঞ্চল্যকর মন্তব্য করে বলেন, ‘এই ঘটনা একটা সেটিং গল্প । উনি নিজেই দুষ্কৃতীদের উসকে নিজের দলের কর্মীদের মার খাইয়েছেন । এই ঘটনা ওনার প্রি-প্ল্যানড চক্রান্ত’ ।

সুজাতা মন্ডল আরও বলেন, ‘বিজেপি কর্মীরা আপনারা সাবধান হন আপনারা যার জন্য ঘুরছেন তিনি নিজের স্বার্থে নিজের দলের লোকদেরকেই মার খাইয়ে দেবেন । দুষ্কৃতিদের উসকে দিয়ে সেন্টিমেন্ট নেবেন । ওনাকে বিশ্বাস করবেন না, ভরসা করবেন না । পুলিশের উচিত ওনার বিরুদ্ধ কড়া পদক্ষেপ নেওয়া । আমি পাত্রসায়ের থানার পুলিশকে বলব ওনার বিরুদ্ধে কঠোরতম ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য’।

নিউজ টাইম চ্যানেলের খবরটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন।
Inform others ?
Share On Youtube
Show Buttons
Share On Youtube
Hide Buttons
Wordpress Social Share Plugin powered by Ultimatelysocial
Facebook
YouTube