১৬ ডিসেম্বরের মধ্যেই মিটিয়ে দিতে হবে বকেয়া ডিএ, রাজ্যকে নির্দেশ স্যাটের

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : করোনা পরিস্থিতির মধ্যেই ফের ধাক্কা খেল রাজ্য সরকার। রাজ্য সরকারি কর্মীদের বকেয়া ডিএ বা মহার্ঘভাতা মিটিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দিল স্যাট। বুধবার স্যাটের তরফ থেকে জানানো হয়েছে আগামী ১৬ ডিসেম্বরের মধ্যে এই বকেয়া মহার্ঘ ভাতা মিটিয়ে দিতে হবে। ফলে বলাই যায়, রাজ্য সরকারের সামনে এটা একটা বড় ধাক্কা।

ওয়াকিবহাল মহলের মতে, স্যাটের এই রায়ে বিরুদ্ধে রাজ্য সরকার হাইকোর্ট কিংবা সুপ্রিম কোর্টে যেতেই পারে। কিন্তু স্যাটে একাধিকবার আবেদনের পরেও রাজ্য সরকারের যে ভাবে মুখ পুড়ল তা অনভিপ্রেত। রাজ্য সরকারি কর্মচারীরা বকেয়া ডিএ নিয়ে গত ২ বছর ধরেই বারংবার স্যাটে মুখ পুড়েছে রাজ্য সরকারের। এর আগে রাজ্যের করা রিভিউ পিটিশনের আবেদনও বাতিল করে দিয়ে স্যাট স্পষ্টই জনিয়েছে, কোনওভাবেই রাজ্য কর্মীদের ডিএ আটকে রাখতে পারে না। ফলে দ্রুতই এই বকেয়া মিটিয়ে দিতে হবে।

কিন্তু তারপরেও রাজ্যের তরফ থেকে ফের আবেদন করা হয়। তারপরেই এদিন ফের কর্মচারিদের স্বার্থে এই রায় দেয় স্যাট। কর্মচারি ইউনিয়নের পক্ষে সঙ্কেত চক্রবর্তী বলেন, ‘এই রায় থেকেই স্পষ্ট কীভাবে রাজ্য কর্মীদের বকেয়া আটকে রেখেছে। যতবার রাজ্য সরকার স্যাটে গিয়েছে, ততবারই হেরে গিয়েছে। কিন্তু নির্লজ্জ রাজ্য সরকার এরপরেও বকেয়া ডিএ দেবে না। হয়তো এই রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্ট কিংবা সুপ্রিম কোর্টে যাবে। কিন্তু আমাদের যে লড়াই তা চলতেই থাকবে।

রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে এই নিয়ে এখনও সরকারিভাবে মন্তব্য করা না হলেও বলা হয়েছে, রায়ের কপি হাতে পেয়ে সবদিক খতিয়ে দেখে তারপরেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। রাজ্য সরকার আগেই জানিয়েছিল, মহার্ঘ ভাতা রাজ্যের ইচ্ছের উপর নির্ভরশীল। যদিও তা নিয়ে রাজ্যের মুখ পুড়েছিল আদালতে। এবার সেরকম কিছু না বললেও রাজ্য সরকার যে এই রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে যেতে পারে, তা মোটামুটি স্পষ্ট। তবে কিছুটা সময় না গেলে সব বিষয়টি স্পষ্ট হবে না।

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons