করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক উপেক্ষা করে রূপকথার বিয়ে পিন্টু ও তার চিনা প্রেমিকার

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : করোনা ভাইরাসের আতংক নিয়ে যখন চিন,ভারত সহ সারা পৃথিবী জুড়ে ত্রস,ঠিক সেই সময় অন্য রকম ভালোবাসার কথা শোনালো পিন্টু জানা ও এঞ্জেল।

পিন্টু জানা ভারতের পশ্চিমবংগের পুর্ব মেদিনীপুর জেলার কাঁথির পশ্চিম পারুলিয়া গ্রামের বাসিন্দা।আর এঞ্জেল চিনের গোয়াং প্রদেশের বাসিন্দা।

ছোট মামার হাত ধরে চিনে সাত বছর আগে গার্মেন্টস এর ব্যাবসা করতে গিয়েছিলো পিন্টু। সেখানেই এঞ্জেলের সাথে পরিচয়। সেই পরিচয় ধীরে ধীরে প্রণয়ের সম্পর্ক গড়ে তোলে । সেই সম্পর্কের হাত ধরে মেয়ে ও ছেলের পরিবার সিদ্ধান্ত নেয় চার হাত এক করে দেওয়ার। চলতি মাসের ৪ তারিখ

বিয়ের দিন স্থির হয় । একমাস আগে। হিন্দু মতে হবে বিয়ে ।সব ঠিক মতই চলছিলো। ১০-১২ দিন আগে হঠাত করে উদয় হওয়া করোনা ভাইরাস সব তাল কেটে দেয় ! বিয়ের কি হবে চিন্তায় পড়ে দুই পরিবার।

পিন্টু ও এঞ্জেলের পরিবার ঠিক করে বিয়ে হবে নির্দিষ্ট দিনেই বিয়ে হবে । কোন ভাবে মেয়ে এঞ্জেল ও ছেলে পিন্টু ভিসা নিয়ে ভারতে চলে এলেও চিনে আটকে পড়ে বরের জামাই ও কনের পুরো পরিবার। সেই বিচ্ছেদের মধ্যেই মংগলবার চার হাত এক হলো দুজনের। কিন্তু কবে ভারতে আসতে পারবে এঙ্গেল এর পরিবার ও কবে তারা আশীর্বাদ করতে পারবে নব দম্পতি কে সেই অপেক্ষায় প্রহর গুনছে পিন্টুর পরিবার।

বিয়ের পর তাঁরা কী চিনে যাবেন? এই প্রশ্নের জবাবে জিয়াকি বলেন, ‘ফিরব তো বটেই, তবে কবে ফিরব জানি না। সবকিছু মিটে গেলে ওখানে গিয়ে রেজিস্ট্রি করে বিয়ের পর্ব সম্পূর্ণ করব।’ জিয়াকির স্বামী পিন্টু জানালেন, ‘আমরা এখানে বিয়েটা করতে চেয়েছিলাম। করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে জিয়াকির পরিবার আসতে পারেনি। পরে চিনে আর একটা অনুষ্ঠান করা হবে।’

নিউজ টাইম চ্যানেলের খবরটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন।
Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons