২২ জেলায় ২২টি করোনা হাসপাতাল, নজিরবিহান সিদ্ধান্ত মমতা সরকারের

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ইতিমধ্য়েই ২০ ছাড়িয়েছে। এই সংখ্যা আরও বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলেই আশঙ্কা করা হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে তৎপরতার সাথে কাজ করে চলেছে মমতা সরকার। রাজ্যের স্বাস্থ্যকেন্দ্র গুলিতে যাতে কোন রকম সমস্যা না হয় তাই প্রশাসনের তরফে সবরকম ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। প্রথমে মেডিকাল কলেজ ও হাসপাতাল এবং পরে রাজারহাটের চিত্তরঞ্জন ন্যাশনাল ক্যান্সার ইনস্টিটিউটকেও করোনা হাসপাতালে রূপান্তরিত করা হয়। তবে এবার আরও একধাপ এগিয়ে সোমবার রাজ্যের ২২ টি জেলায় ২২টি “ডেডিকেটেড” নভেল করোনা হাসপাতাল তৈরি করার সিদ্ধান্তের কথা ঘোষনা করা হল স্বাস্থ্য ভবনের তরফে। 

ইতিমধ্য়েই ওই ২২ টি জলার প্রশাসন এবং জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকদের কাছে এবিষয়ে নির্দেশ পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। রাজ্যের যে কোন প্রান্তের মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়ে যাতে সাথে সাথে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা পান সেদিকে খেয়াল রেখেই রাজ্যের প্রশাসনের তরফে এহেন সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হয়েছে। স্বাস্থ্য অধিকর্তা অজয় চক্রবর্তীর কথায়, “জেলের কোন হাসপাতালকে ‘করোনা হাসপাতালে’ করা হবে, এর জন্য কী কী প্রয়োজন রয়েছে। এই সব বিষয়ে দ্রুত তথ্য প্রদানের জন্য জেলাগুলিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে”। 

রাজ্যের পতিটি জেলার মানুষ যাতে সমান ভাবে করোনা ভাইরাসের চিচিৎসা পান সেকারনেই রাজ্যের ২২ টি জেলায় এই ডেডিকেটেড হাসপাতাল তৈরি করা হবে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য ভবন। জেলার তরফে স্বাস্থ্য ভবনকে পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট পাঠানোর পরেই সংশ্লিষ্ট হাসপাতালকে ‘করোনা হাসপাতালে’ রূপান্তরিত করার কাজ শুরু হবে বলে জানা গিয়েছে। 

 

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons