‘আইন নিজের হাতে তুলে নেবেন না’, লকডাউন প্রসঙ্গে রাজ্যবাসীকে অনুরোধ মমতার

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : করোনার থাবায় ভয়াবহ পরিস্থিতি বিশ্বজুড়ে। দৈনন্দিন আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন বিশ্ববাসী। ইতিমধ্যেই করোনা সংক্রমণ রুখতে দেশের ৭৫ টি জেলায় লকডাউনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে মোদী সরকার। করোনা মোকাবিলায় দেশবাসীর উদ্দেশ্যে কড়া বার্তা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এবার সে পথে হেঁটেই রাজ্যবাসীর উদ্দেশ্যে করোনা মোকাবিলার জন্য আবেদন করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। এদিন তিনি বলেন,  “আতঙ্কিত হবার কোন কারন নেই। কেউ আতঙ্ক ছড়াবেন না। সবাই বাড়িতে থাকুন। সতর্ক থাকুন। সবাই সুস্থ থাকুন। খুব দরকার না বাড়ির বাইরে বেরোনোর প্রয়োজন নেই। কদিন পর থেকে বাইরে কাজ করুন। যদি কেউ বিদেশ থেকে ফেরেন তাহলে টানা ১৪ দিন বাড়ি থেকে বেরোবেননা। কোন অবস্থাতেই আইনকে নিজের হাতে তুলবেননা।”

করোনা সংক্রমণ রুখতে তথা ‘ব্রেক দ্য চেন’-এই সংকল্পে উদ্দিপ্ত হয়ে সোমবার তথা ২৩ মার্চ বিকেল ৪টে থেকে ২৭ মার্চ মধ্যরাত পর্যন্ত লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। এই কয়েকদিন বেশ কিছু জরুরি পরিষেবা ও অত্যাবশ্যকীয় পণ্য ছাড়া বাকি সমস্ত কিছুই বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। স্বাস্থ্য পরিষেবা ছাড়া এই দিনগুলিতে মিলবেনা ট্রেন ও মেট্রো পরষেবাও। একইসাথে ৭ জনের বেশি কোন স্থানে জমায়েতের ক্ষেত্রেও জারি হয়েছে নিষেধাজ্ঞা। 

উল্লেখ্য, ভারতে এখনও পর্যন্ত করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৪১৫। এই সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। মোট মৃতের সংখ্যা ৭। এই অবস্থায় দেশের প্রশাসন নানা কড়া পদক্ষেপ নিয়ে চলেছে। জনসাধারনকে সচেতন করেছেন প্রধানমন্ত্রী। দেশর একাধিক জেলায় নেওয়া হয়েছে লকডাউনের সিদ্ধান্ত। এবিষয়ে মোদি এদিন একটি ট্যুইট করে বলেন, “অনেক মানুষ লকডাউনকে গুরুত্ব দিয়ে নিচ্ছেন না। দয়া করে নিজেকে ও নিজের পরিবারকে সুরক্ষিত রাখুন। যথাযথভাবে নির্দেশিকা মেনে চলুন। আমি সমস্ত রাজ্য সরকারকে অনুরোধ করছি আইন মেনে লকডাউন নিশ্চিত করুন।” এর পরেই রাজ্যবাসীর উদ্দেশ্যে নিজেকে সুরক্ষিত রাখার অনুরোধ জানান পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়।

 

 

 
 

 

 
Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons