‘বাংলায় বিজেপি ই আসছে’-মমতাকে কটাক্ষ অমিত শাহের

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : দেশের রাজধানী দিল্লির হিংসার আগুন কেড়ে নিয়েছে বহু প্রাণ। এর ই মধ্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের কলকাতা আগমন পরিস্থিতি আরও উস্কে দিল।শহিদ মিনারের সভার শুরুতই তৃণমূল সরকারকে নিশানা করলেন অমিত শাহ। রবিবার মধ্যাহ্ণে অনুষ্ঠিত  সভার শুরুতে ‘ভারত মাতা কী জয়’ স্লোগান দিতে গিয়ে শাহ বলেন, ‘‘এভাবে আওয়াজ দিলে হবে! এভাবে আওয়াজ দিলে মমতাদিদির সরকার কি বিদায় নেবে? নাকি আরও জোরে আওয়াজ দিতে হবে। লক্ষ লক্ষ মানুষকে নাগরিকত্বের উপহার দিয়েছেন মোদী। সিএএ বিরোধীদের কানে যাতে পৌঁছোয়, তেমন আওয়াজ করুন’’। এরপরই শাহ বলেন, ‘‘মমতাদি বিজেপিকে বলতেন, জামানত সামলে রাখুন, আপনাকে বলছি, বিধানসভা নির্বাচনে এবার বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে বাংলায় বিজেপি সরকার গড়বে। কোনও রাজপুত্র নয়, বাংলার ভূমিপুত্রের হাতেই শাসনভার থাকবে’’। এদিনের সভা থেকেই ‘আর নয় অন্যায়’ অভিযানের ডাক দেন অমিত শাহ। বলেন, ‘এই অভিযানের জন্য বাংলার ঘরে-ঘরে পৌঁছে যেতে হবে। আমরা কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়াই করব।’ ‘আর নয় অন্যায়’ অভিযানের জন্য ৯৭২৭২৯৪২৯৪-এ মিস কল চালু করার কথা জানান তিনি। সেই মিস কলই বাংলা থেকে তৃণমূলকে তাড়াবে বলে আশা ব্যক্ত করেন তিনি। বাংলার জনগণের উদ্দেশে তাঁর আবেদন, ‘সিপিএমকে আপনারা ক্ষমতায় এনেছিলেন, মমতা দিদিকে ১০ বছর দিয়েছেন। কোনও উন্নয়ন হয়নি। আমাদের পাঁচ বছর দিন। সোনার বাংলা করে দেব।’

অন্যদিকে, অমিত শাহকে কালী মা’র ছবি উপহার দিল বাংলার  বিজেপি বাহিনী। দিলীপ ঘোষ তার হাতে তুলে দেন মা কালীর ছবি।

এদিকে, অমিত শাহকে ঘিরে কলকাতায় তুমুল উত্তেজনা। ধর্মতলায় গ্র্যান্ড হোটেলের সামনে দেখা ‌যায় পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের চরম ধস্তাধস্তি। অমিত শাহের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে আন্দোলন কারীরা।

পুলিশ ব্যারিকেড সরিয়ে ও এগোতে চায় তারা। এরপর পরিস্থিতি আর ও জটিল হয়।

কলকাতায় পা রেখেই বিক্ষোভের মুখে পড়লেন অমিত শাহ। বিমানবন্দরে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে কালো পতাকা প্রদর্শন করে বামেরা।

 ‘অমিত শাহ গো ব্যাক’ স্লোগানে মুখরিত কলকাতা শহরের বহু স্থান। পার্ক সার্কাস, কৈখালি মোড়, শ্যামবাজার, গড়িয়াহাট, সন্তোষপুরে অমিত শাহের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ প্রদর্শন বাম-কংগ্রেসের। এদিন বাম পরিষদীয় নেতা সুজন চক্রবর্তী বলেন ,অমিত শাহের হাতে রক্তের দাগ। কলকাতায় তাঁকে স্বাগত জানানো হবে, এটা হতে পারে না। দুর্ভাগ্যের যে অমিত শাহের সভায় অনুমতি দিয়েছে রাজ্য সরকার। তাদের একটাই স্লোগান গো ব্যাক অমিত শাহ। অমিত শাহের কলকাতা সফর প্রসঙ্গে পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম বলেন, বাংলার মানুষ সিএএ-এনআরসি করতে দেবে না। কে এল আর গেল, ভাবছি না। অমিত শাহের সফরে আমরা চিন্তিত নই’’।

 

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons