উচ্চ মাধ্যমিক: অনিয়মে আজীবন রেজিস্ট্রেশন বাতিলের ভাবনা

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : মাধ্যমিক পরীক্ষা শেষ হবে ২৭ ফেব্রুয়ারি। সেই পরীক্ষা শেষ হওয়ার আগেই প্রশ্ন ফাঁস ঠেকাতে আরও কড়া অবস্থানের কথা ঘোষণা করল উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ। ১২ই মার্চ থেকে এ বছরের উচ্চ মাধ্যমিক শুরু হওয়ার কথা। উচ্চ মাধ্যমিকের শিক্ষা সংসদের সভানেত্রী মহুয়া দাস জানান, মাধ্যমিক পরীক্ষায় যে ধরনের অনিয়মের অভিযোগ উঠছে, উচ্চ মাধ্যমিকে তেমন কিছু ঘটলে সংশ্লিষ্ট পরীক্ষার্থীকে আজীবনের বহিষ্কারের মতো কঠোর সিদ্ধান্ত নেবে পর্ষদ, বাতিল হবে রেজিস্ট্রেশন ।
মাধ্যমিকে অনিয়মে অভিযুক্তদেরও দৃষ্টান্তমূলক কঠোর সাজা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন  শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় ।এখন পর্ষদ সর্বোচ্চ সাজা বাবদ অভিযুক্ত পরীক্ষার্থীকে এক বছরের জন্য বহিষ্কার করতে পারে। পর্ষদ যদিও ইতিমধ্যেই কিছু কঠোর পদক্ষেপ করেছে। পরীক্ষা চলাকালীন ভূগোলের ভুয়ো প্রশ্নপত্র সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়ানোর অপরাধে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ বিধাননগর থানায় এফআইআর করেছে বলে জানান পর্ষদ সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়। তিনি আরও জানান, মোবাইল-সহ যে-সব পরীক্ষার্থী এ বছর আর মাধ্যমিকে ধরা পড়েছে, তাদের বিষয়ে পর্ষদের ‘আরএ’ কমিটি বৈঠকে বসবে। সেখানেই চূড়ান্ত করা হবে, ওরা কত বছর পরীক্ষায় বসতে পারবে না, নাকি রাস্টিকেট করা হবে।

মাধ্যমিক শুরুর দিন থেকেই রাজ্যের একাংশে ইন্টারনেট বন্ধের ঘোষণায় পরীক্ষার সময়ে প্রশ্নপত্র বাইরে আসা আটকানো গেলেও রোজই প্রশ্নপত্র ঘিরে নানা বিভ্রান্তিতে ক্ষুব্ধ শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। যে বা যারা পরীক্ষা কেন্দ্রে মোবাইলে প্রশ্নপত্রের ছবি তুলছে এবং তা বাইরে পাচারের চেষ্টা করছে, বৃহস্পতিবার রাতেই এমন ঘটনায় দোষীদের কঠোর শাস্তির হুঁশিয়ারি দিয়েছেন।
পুলিশ সূত্রে খবর, বুধবারও একই ঘটনা ঘটলেও সে-ক্ষেত্রে অবশ্য কোনও অভিযোগ হয়নি।

 

গত বছর মাধ্যমিকে ছ’টি বিষয়ের প্রশ্নপত্র হোয়াটসঅ্যাপে পরীক্ষা চলাকালীন বাইরে চলে আসে। তার পরই রাজ্য প্রশাসন তড়িঘড়ি সাত জেলায় প্রশ্নপত্র বিলির আগে থেকে পরীক্ষা শেষ অবধি ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখে। তাতেও মাধ্যমিক পরীক্ষায় একই ঘটনায় বিরক্ত শিক্ষামন্ত্রী।

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons