‘লকডাউনের আগেই শ্রমিকদের কথা ভাবা উচিত ছিল’, সরকারের আক্রমন হরভজনের

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : দিল্লির আনন্দ বিহার বাসস্ট্যান্ড বর্তমানে পরিযায়ী শ্রমিকদের ভিড়ে ঠাসা। এই মুহূর্তে কীভাবে তাঁরা বাড়ি ফিরবেন সেই চিন্তায় কপালে ভাজ পড়েছে শ্রমিকদের। তাঁদের পরিস্থিতির কথা ভেবে এবার দেশ জুড়ে লকডাউনের সিদ্ধান্তকে কটাক্ষ করলেন হরভজন সিং। তাঁর কথায়, এত বড় সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে এই পরিযায়ী শ্রমিকদের কথা সরকারের ভাবা উচিত ছিল। 

প্রধানমন্ত্রীর ঘোষনা অনুযায়ী আগামী ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত দেশ জুড়ে চলবে লকডাউন। এই অবস্থায় নিজেদের কাজ ও থাকার জায়গা হারিয়ে সংকটে পড়েছেন পরিযায়ী শ্রমিকেরা। এবার নিজের নিজের বাড়ি ফেরার তাগিদে শনিবার রাতে দিল্লির আনন্দ বিহার বাসস্ট্যান্ডে ভিড় জমান তাঁরা। জানা গিয়েছে তাঁদের মধ্যে কেউ যাবেন ওড়িশা সীমান্ত লাগোয়া কোনো গ্রামে। আবার অনেকেই ফিরবেন ১১০০ কিলোমিটার দূরে বিহারের কোন গ্রামে। ইতিমধ্যেই উত্তরপ্রদেশ সরকারের তরফে তাঁদের জন্য কিছু বাসের বন্দোনস্ত করা হয়েছে। সেই বাসে করেই করোনা সংক্রমণের তোয়াক্কা না করেই নিজ নিজ ঘরে ফিরছে তারা। 

এহেন প্রেক্ষাপটে দাঁড়িয়ে হরভজন সিং বলেন,  “আমার মনে হয় আগেই সরকারের ওদের কথা ভাবা উচিত ছিল। ওদের কাছে মাথা গোঁজার ঠাঁই নেই, রোজগারের জন্য কাজ নেই, খাবার জন্য অন্ন নেই। আর এই পরিস্থিতিতে ওরা নিজের প্রয়জনদের কাছে ফিরতে চান। যা ঘটছে তা অত্যন্ত কষ্টদায়ক। এত তাড়াতাড়ি এতকিছু হয়ে যাবে তা তেউ ভাবতে পারেনি। দেশের সংকটের মুহূর্তে সরকারও ওদের কথা ভাবার সময় পায়নি। আমি আশা করব আমরা আরও বুদ্ধিমত্তার সঙ্গে সিদ্ধান্ত নিতে পারি, যাতে কোনও নাগরিককে এভাবে কষ্ট পেতে না হয়। এখন ঐক্যবদ্ধ হওয়ার সময়, এবং এই দেশের জন্য যতটা করা সম্ভব ততটা করার সময়।”

 

 

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons