৫ ক্রিকেটারকে শাস্তি আইসিসির, সাসপেন্ড ১০ ম্যাচে

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : যুব বিশ্বকাপের ফাইনাল শেষে ভারত-বাংলাদেশ দু’দলের ক্রিকেটাররা নিজেদের মধ্যে ঝামেলা ও ধাক্কা-ধাক্কি করার কারনে বড়বড় শাস্তির মুখে পড়লেন এই দুই দেশের ৫ জন ক্রিকেটার। ক্রিকেটারদের এই ধাক্কা-ধাক্কিতে জড়িয়ে পড়ার বিষয়টিকে ভালো চোখে দেখেনি ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসির)। তাই ম্যাচের পরেই আইসিসির তরফে জানিয়ে দেওয়া হয় পুরো ঘটনাটি খতিয়ে দেখতে শুরু হবে তদন্ত। এবং একইসাথে দোষীদের শাস্তি দেওয়ারও হুঁশিয়ারিও দেওয়া হয়। এরপরেই সেদিনের ঘটনার ভিডিও ফুটেজ খতিয়ে দেখে দু’দলের মোট পাঁচজন ক্রিকেটারকে দোষি সাব্যস্ত করে আইসিসি।    

শাস্তিস্বরূপ ওই ৫ জন ক্রিকেটারকে ৪ থেকে ১০ টি ম্যাচের জন্য নির্বাসিত করা হচ্ছে। তাঁদের মধ্যে তিন জন বাংলাদেশের এবং দু’জন ভারতের ক্রিকেটার। বাংলাদেশের ‌যে তিনজন ক্রিকেটার নির্বাসিত হচ্ছেন তাঁরা হলেন, রাকিবুল হাসান, শামিম হোসেন ও মহম্মদ তাওহিদ হৃদয়। অন্যদিকে ভারতীয় দলের রয়েছেন রবি বিষ্ণোই ও আকাশ সিং। তাঁরা সকলেই আইসিসির আচরণবিধির ২.২১ ধারায় দোষি সাব্যস্ত হয়েছেন৷ এই ৫ জন ক্রিকাটারের বিরুদ্ধে লেভেল-থ্রি পর্যায়ের অপরাধের অভিযোগ আনা হলেও কোড অফ কন্ডাক্টের ২.৫ ধারা ভঙ্গ করেছেন বলেও আরও একটি অভ‌যোগ ওঠে রবি বিষ্ণোইয়ের বিরুদ্ধে।

 

প্রসঙ্গত, রবিবার দক্ষিন আফ্রিকার পোচেস্ট্রুমে অনুর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ ফাইনালের শেষে বাংলাদেশের জয় সেলিব্রেশনের সময় ঝামেলায় জড়িয়ে পড়েন দুই দলের ক্রিকেটারদের কয়েকজন। বিষয়টিকে ভালো চোখে দেখেনি আইসিসি। ঘটনার তদন্তে নেমে সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে অপরাধ প্রমানিত হওয়ায় কড়া শাস্তির মুখে পড়লেন দুই ভারতীয় সহ তিনজন বাংলাদেশী ক্রিকেটর।

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons