নাবালিকার বিয়ে বন্ধ করতে গিয়ে আক্রান্ত পুলিশ

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : এক নাবালক ও নাবালিকার বিয়ে দেওয়া হচ্ছিল দক্ষিন ২৪ পরগনার ক্যানিং থানার অন্তর্গত গোপালপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের সর্দার পাড়ায়। সেই খবর পেয়ে সোমবার রাতে ক্যানিং থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে যায় বিয়ে বন্ধ করতে। অভিযোগ সেখানে পুলিশকে দেখেই ঐ বিয়ে বাড়ির লোকজন কার্যত পুলিশের দিকে তেড়ে আসে। পুলিশকর্মীরা পরিবারের লোকজনকে বোঝানোর চেষ্টা করেন নাবালিকা বিয়ের কুফল সম্পর্কে। কিন্তু সে কথা না শুনে উল্টে ওই বিয়ে বাড়ির লোকজন পুলিশের উপর চড়াও হয়।

অকথ্য ভাষায় গালিগালাজের পাশাপাশি তাঁদের লক্ষ্য করে ইট, লাঠি, শাবল, কড়াত দিয়ে হামলা চালানো হয়। ভেঙে দেওয়া হয় পুলিশ গাড়ির কাঁচ। ঘটনায় ক্যানিং থানার এক সাব ইন্সপেক্টর সহ মোট পাঁচ পুলিশকর্মী জখম হয়েছেন। আহতদেরকে রাতেই উদ্ধার করে ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসা হয়। এই ঘটনায় মাথা ফেটেছে ওই সাব ইন্সপেক্টরের। ঘটনার খবর পেয়েই ক্যানিং থানার আইসি সৌগত ঘোষের নেতৃত্বে ক্যানিং থানার আরও পুলিশকর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছন। ততক্ষণে অভিযুক্তরা অনেকেই সেখান থেকে পালিয়ে গিয়েছেন। তবে পুলিশ এই ঘটনায় মূল অভিযুক্ত সঞ্জয় কুমার নামে এক ব্যক্তিতে সোমবার রাতেই গ্রেফতার করেছে। ধৃতকে মঙ্গলবার আলিপুর আদালতে তোলা হবে।

Inform others ?
Share On Youtube
Show Buttons
Share On Youtube
Hide Buttons
Wordpress Social Share Plugin powered by Ultimatelysocial
Facebook
YouTube