সংসদ সেনার পাশে থাকার বার্তা দেবে, আশাবাদী মোদী

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : গোটা দেশ ভারতীয় সেনার পাশে রয়েছে। আশা করি সংসদ এই বার্তাই দেবে। বাদল অধিবেশন শুরুর বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। প্রায় ছ’মাস বন্ধ থাকার পর আজ থেকে শুরু হল সংসদের বাদল অধিবেশন। গত কয়েক মাস নিয়ন্ত্রণরেখায়. ভারত-চিন সংঘাতকে কেন্দ্র করে অধিবেশ উত্তপ্ত হতে পারে। ভারত-চিন ইস্যুতে বিরোধী শিবির সরকার পক্ষকে অধিবেশনে চেপে ধরতে পারে। তাই মনে করা হচ্ছে শুরুতেই কৌশলী বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী।

মোদী বলেছেন, ‘আমাদের সেনাবাহিনী অসীম সাহস, নিষ্ঠা ও দেশের প্রতি আত্মত্যাগের ভাবনা থেকে সীমান্তে শক্ত দেওয়াল হয়ে দাঁড়িয়ে রয়েছেন। তাঁরা কঠিন উচ্চতায় রয়েছেন। কিছুদিন পরেই বরফ পড়া শুরু হবে। তাই আমি আত্মবিশ্বাসী যে এই অবস্থায় সংসদ ও সাংসদরা এক হয়ে একটা বার্তা দেবেন, যে গোটা দেশ সেনার পাশে শক্তভাবে দাঁড়িয়ে রয়েছে।’

গত ১৫ জুন লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় চিনা সেনার আগ্রাসনে মৃত্যু হয় ২০ ভারতীয় সেনাকর্মীর। চিনা সেনা ভারতীয় ভূখণ্ডে অনুপ্রবেশ করেছে বলে অভিযোগ ওঠে। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী সর্বদল বৈঠকে জানিয়েছিলেন লালফৌজ ভারতীয় ভূখণ্ডে প্রবেশ করেনি বা কোথাউ তারা অবস্থানও করছে না। তখনই কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সুর চড়িয়েছে কংগ্রেস। বাস্তব পরিস্থিতি ও মোদীর দাবির অসাঞ্জস্যতার কথা তুলে বিশেষ করে কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী প্রায় প্রতিদিনই বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন। কখনও ভারতের সীমান্ত সামলাতে মোদী সরকার ব্যর্থ, কখনও আবার লাল ফৌজের চোখরাঙানিকে ভয় পাচ্ছে কেন্দ্র, এই সব অভিযোগ তুলেছেন রাহুল। কিন্তু তারপরেও চিন ইস্যুতে সব রাজনৈতিক দলকে সেনার পাশে থাকার বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী।

করোনা আবহে কাটছাঁট করে ১৮ দিনের জন্য শুরু হল সংসদের বাদল অধিবেশন। চলবে ১ অক্টোবর পর্যন্ত। সংসদের উভয় কক্ষেই সাংসদদের বসার জন্য বিশেষ আয়োজন করা হয়েছে। অধিবেশন শুরুর আগে সর্বদল বৈঠক বাতিল, অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্ব বাতিল ও জিরো আওয়ারের সময় কমানো-সহ নানা ইস্যুতে সরব হয়েছে বিরোধীরা।

প্রয়াত প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যকে শ্রদ্ধা জানাতে এদিন শুরুতেই লোকসভার অধিবেশ ১ ঘন্টার জন্য মুলতবি করা হয়।

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons