ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের ওয়েবসাইট বন্ধ করল চিন, কেন্দ্রের সাহায্য চাইল সোসাইটি

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : সীমান্ত বিরোধের পাশাপাশি ভারত-চিন সম্পর্কে এখনও জারি অচলাবস্থা। টিকটক-সহ বহু চিনা অ্যাপ ভারতে বাতিল হতেই শি জিনপিং-এর দেশে বন্ধ হল ভারতীয় সংবাদপত্র, সংবাদমাধ্যম এবং ভারতীয় নিউজ পোর্টাল। এই ঘটনার পর কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে ‘নালিশ’ জানায় ইন্ডিয়ান নিউজপেপার সোসাইটি (আইএনএস)। মঙ্গলবার একটি বিবৃতি জারি করে আইএনএসের তরফে বলা হয়েছে যে চিনের সরকারের এই ধরণের পদক্ষেপ অযাচিত।

চিনের এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে সদস্যদের তরফে আইএনএস সভাপতি শৈলেশ গুপ্ত বলেন, “ভারতীয় সংবাদপত্র এবং মিডিয়া ওয়েবসাইটগুলির ব্যবহারে লাগাম টেনেছ চিন সরকার। এই পদক্ষেপ অযাচিত। প্রযুক্তিগত দিক থেকে উন্নত ফায়ারওয়াল তৈরি করে ভিপিএন সার্ভারের মাধ্যমে অ্যাক্সেসও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে”।

এই ঘটনায় ভারত সরকারের হস্তক্ষেপের দাবি জানান হয়েছে আইএনএস-এর তরফে। এই বিষয়ে নিজেদের মতামত কঠোরভাবে জানিয়ে শৈলেশ গুপ্ত বলেন, “ভারতে অবিলম্বে চিনা মিডিয়া এবং তাঁদের প্রবেশ ব্যান করে দেওয়া উচিত। খুব দ্রুততার সঙ্গে এই পদক্ষেপ গ্রহণ করতে আর্জি জানাচ্ছি। এমনকী ভারতীয় মিডিয়ায় চিনের যদি কোনও বিনিয়োগ বা সহযোগিতা থাকে সেটিকেও নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হোক।”

সোমবার টিকটক, শেয়ারইট, ইউসি ব্রাউজারের মতো জনপ্রিয় ৫৯টি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করেছে তথ্য-প্রযুক্তি মন্ত্রক। ওই অ্যাপগুলি ‘দেশের সার্বভৌমত্ব, অখণ্ডতা, দেশের সুরক্ষার জন্য ক্ষতিকারক। সেকারণেই ওই অ্যাপগুলিকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে’ বলে জানিয়েছে মন্ত্রক। দেশের তথ্য প্রযুক্তি আইনের ৬৯-এ ধারায় অ্যাপগুলি নিষিদ্ধ করা হয়েছে। সীমান্ত উত্তেজনার আবহে চিনের বিরুদ্ধে দিল্লির এই পদক্ষেপকে ‘ভার্চুয়াল স্ট্রাইক’ বলে দেখা হচ্ছে।

 

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons