‘আলোচনার মাধ্যমেই ভারত-চিন সমস্যার সমাধান হবে’, বৈঠক শেষে বিবৃতি বিদেশমন্ত্রকের

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : গত কয়েকদিন থেকেই লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা বারাবর চলছিল ভারত-চিন টানাপড়েন। শনিবার সেই উত্তেজনা নিয়ে দুই দেশের সেনাবাহিনীর লেফটেন্যান্ট জেনারেল পর্যায়ের বৈঠক হয়। তারপরেই এই আলোচনা ফলপ্রসূ হয়েছে বলে রবিবার একটি বিবৃতি জারি করে জানাল বিদেশমন্ত্রক। এমনকি আগামীতেও এবিষয়ে  কূটনৈতিক এবং অসামরিক পর্যায়ে আলোচনা চালিয়ে সমস্ত সমস্যা মিটিয়ে নেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, শনিবার সীমান্ত নিয়ে আলোচনা করতে চিনের মালডো এলাকায় লালফৌজের সেনাঘাঁটিতে দুই দেশের লেফটেন্যান্ট জেনারেল পর্যায়ের বৈঠক হয়। বৈঠক শেষেই তার রিপোর্ট সরাসরি পাঠিয়ে দেওয়া হয় প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর সহ প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং ও জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভালকে। জানা গিয়েছে, এই বৈঠকে সংঘাত পরিস্থিতি তৈরির পূর্বে যে অবস্থান ছিল চিনের সেনাবাহিনীর, ভারতের তরফে তাঁদের সেখানেই ফিরে যাওয়ার কথা বলা হয়েছে। অন্যদিকে ভারতকেও রাস্তা নির্মান করতে নিষেধ করেছে চিন। তবে এদিনের বৈঠকের পরেই সমস্ত সমস্যা মিটে যাবে সেবিষয়ে স্পষ্টভাবে কিছু বলা না গেলেও দুই দেশের সেনাবাহিনীর তরফে সংঘাট রুখতে ‘সম্ভাব্য সমাধানসূত্র’ বের করে অনেকগুলি বিকল্পের প্রস্তাব পেশ করেছে। 

এখনই কোন সমাধান সুত্র না মিললেও এদিনের বৈঠকে ইতিবাচক আলোচনা হয়েছে বলেও দাবি করেছে ভারতীয় বিদেশমন্ত্রক। এদিন বিদেশমন্ত্রকের তরফে এবিষয়ে যে বিবৃতি প্রকাশ করা হয়েছে, তাতে বলা হয়েছে, “দুই পক্ষই কূটনৈতিক এবং অসামরিক পর্যায়ে আলোচনা করে সমস্যার সমাধান করবে। সীমান্ত এলাকায় শান্তি এবং সহযোগিতার পরিবেশ যাতে বজায় থাকে, তা নিশ্চিত করতে বদ্ধপরিকর দুই দেশই। চিন বিভিন্ন দ্বিপাক্ষিক চুক্তি মেনেই শান্তিপূর্ণভাবে আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা মেটানোর প্রস্তাবে সায় দিয়েছে।” 

 

 

 

Inform others ?

হয়তো আপনার চোখ এড়িয়ে গেছে !

Show Buttons
Hide Buttons