অর্থনীতিকে চাঙ্গা করতে করোনার মধ্য়েই দোকান-বাজার খোলার সিদ্ধান্ত মহারাষ্ট্র সরকারে

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : লকডাউনের পঞ্চম দফা। তাতেও করোনা সংক্রমণ থেকে মিলছেনা মুক্তি। ভারতে প্রায় প্রতিদিনই লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। তবে দেশের মধ্য়ে করোনার হানার জেরে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে মহারাষ্ট্র। এই মারণ ভাইরাসের জেরে সেখানে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে। কিন্তু এভাবে আর লকডাউন কতদিন বজায় রাখা সম্ভব! মার্চ মাস থেকে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে বহাল রয়েছে লকডাউন। ফলে সংকটের মুখে পড়েছে দেশ সহ বিভিন্ন রাজ্যের অর্থনীতি। তাই এবার রাজ্যের অর্থনীতিকে কিছুটা চাঙ্গা করতে সব দোকান-বাজার চালুর অনুমতি মিলল মহারাষ্ট্র প্রশাসনের তরফে। যদিও শপিং মল চালু করার ক্ষেত্রে কোনরকম ছাড়পত্র মেলেনি। 

ইতিমধ্য়েই দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্য়া ২ লক্ষের কাছাকাছি পৌঁছে গিয়েছে। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুসারে মঙ্গলবার বিকেল পর্যন্ত দেশে করোনার বলি হয়েছে ৫৫৯৮ জন। এবং আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে  ১,৯৮,৭০৬। অন্যদিকে মহারাষ্ট্রে ৭০,০১৩ জনের শরীরে থাবা বসিয়েছে মারণ ভাইরাস করোনা। এখনও পর্যন্ত ওই ভাইরাসে মৃত্যু হয়েছে ২৩৬২ জনের। 

করোনার উপস্থিতির মধ্য়েই আনলক ১ ঘোষণা করা হয়েছে কোন্দ্র সরকারের তরফে। আর সেই মর্মে বেশ কিছু খেত্রে ছাড়পত্র দিয়ে স্বাভাবিক ছন্দে ফিরছে বহু রাজ্য। এবার সেই তালিকায় নাম লেখাল মাহারাষ্ট্র।  রাজ্যের প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, বুধবার থেকেই সব ছোট দোকান খোলা হবে। বাজারগুলিও খুলবে আগামী ৫ জুন থেকে। তবে  শপিং মল যে এখুনই খোলা হচ্ছেনা তা সাফ জানিয়ে দিয়েছে রাজ্যের প্রশাসন।

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons