লকডাউন ৫ এ নয়া হোমটাস্ক দিলেন মোদি!

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি রবিবারে তাঁর মন কি বাত অনুষ্ঠানে মাই লাইফ,মাই যোগা নামে একটি প্রতিযোগিতার ঘোষণা করেন। দেশজুড়ে যোগব্যায়ামের অভ্যাস বাড়াতে এই প্রতিযোগিতা। নরেন্দ্র মোদি বলেন, করোনা সঙ্কটের সময় তার বিশ্বের বহু নেতাদের সঙ্গে কথা হয়েছে। সম্প্রতি তাঁরা যোগব্যায়াম এবং আয়ুর্বেদ সম্পর্ক খুবই আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

তিনি আর ও বলেন, “সব জায়গার মানুষই যোগব্যায়াম এবং তার সঙ্গেই আয়ুর্বেদ সম্পর্কে আরও বেশি করে জানার চেষ্টা করছেন, যোগ অভ্যাস করতে চাইছেন। বহু মানুষ, যারা যোগ ব্যায়াম করেননি কখনও তারা পর্যন্ত অনলাইনে যোগের ক্লাসে ঢুকে পড়ছেন বা অনলাইন ভিডিও দেখে যোগ করছেন।”

প্রধানমন্ত্রী মোদি বলেন, “করোনা সঙ্কটের এই সময়ে যোগাভ্যাস খুবই প্রয়োজনীয়। এই ভাইরাস, আমাদের শ্বাসযন্ত্রে সবচেয়ে বেশি আঘাত করে। যোগব্যায়ামে শ্বসনতন্ত্রকে শক্তিশালী করার অনেক ব্যায়াম রয়েছে, এর দীর্ঘমেয়াদি সুবিধা রয়েছে।”

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, “আপনাদের জীবনযাত্রায় যোগব্যায়ামের অভ্যাস বাড়াতে আয়ুষ মন্ত্রক একটি দারুণ পদক্ষেপ করেছে। ‘আমার জীবন, আমার যোগ’ বা মাই লাইফ,মাই যোগা নামে আন্তর্জাতিক ভিডিও ব্লগ প্রতিযোগিতার সূচনা হচ্ছে। শুধু ভারতই নয়, সারা বিশ্বের মানুষ এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারেন।”

এই প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহণের জন্য তিন মিনিটের একটি ভিডিও আপলোড করতে হবে। এই ভিডিওতে আপনাকে যোগ বা ব্যায়াম করে দেখাতে হবে এবং যোগব্যায়াম করে আপনার জীবনে কী বদল এসেছে তাও জানাতে হবে।

মোদি বলেন, “আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প গরিবদের টাকা ব্যয় হওয়া থেকে বাঁচায়। আমি আয়ুষ্মান ভারতের সমস্ত সুবিধাভোগী তথা রোগীদের চিকিত্সারত সমস্ত ডাক্তার-নার্স এবং মেডিক্যাল কর্মীদের অভিনন্দন জানাই। আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্পের একটি দুর্দান্ত বৈশিষ্ট্য হল পোর্টেবিলিটি। যা দেশকে একতার রঙে রাঙিয়েছে। অর্থাৎ বিহারের কোনও দরিদ্র মানুষ যদি চান তিনি কর্নাটকেও একই সুবিধা পাবেন, যেমন নিজের রাজ্যে পেতেন।”

“আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্পের ১ কোটি সুবিধাভোগীর মধ্যে ৮০ শতাংশ গ্রামাঞ্চলের বাসিন্দা। ৫০ শতাংশ সুবিধাভোগী মহিলারা,” জানান নরেন্দ্র মোদি।

Inform others ?

হয়তো আপনার চোখ এড়িয়ে গেছে !

Show Buttons
Hide Buttons