তান্ডবলীলা চালাচ্ছে প্রকৃতি, প্রবল দাবানলে ভস্মীভূত উত্তরাখণ্ডের বনভূমি সহ বন্যপ্রাণ

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : করোনার জেরে একেই গৃহবন্দি দশা কাটাচ্ছে দেশবাসী। এই মারণ ভাইরাসের কবল থেকে দেশকে রক্ষা করতে নতুন নতুন পদক্ষেপও নেওয়া হচ্ছে সরকারের তরফে। কিন্তু কোথায় কী। প্রায় প্রতিদিনই লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে দেশে আক্রান্তের সংখ্যা। এই পরিস্থিতিতে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে তান্ডবলীলা চালাচ্ছে প্রকৃতি। দেশজুড়ে মহামারীর মধ্যেই কোথাও ঘূর্ণইঝড়, কোথাও বন্যা তো কোথাও আবার দাবানলের জেরে জেরবার দেশের বিবিন্ন প্রান্ত।

গত ৪ দিন ধরে দাউদাউ করে জ্বলছে উত্তরাখণ্ডের জঙ্গল। এই আগুন বিস্তীর্ণ এলাকায় ছড়িয়ে পড়ায় ছারখার হয়ে গিয়েছে বনভূমির কয়েক হেক্টর জমি। সবুজ বনাঞ্চলের পাশাপাশি প্রাণ হারিয়েছে বহু বন্যপ্রাণীও। এখনোও পর্যন্ত এই দাবানলের জেরে বন দফতরের ক্ষতি হয়েছে প্রায় ১.৩২ লক্ষ টাকা। উত্তরাখন্ডের বনাঞ্চলের এই দাবানলের ঘটনা যেন আরও একবার নকুন করে মনে করিয়ে দিল ব্রাজিলের আমাজনের দাবানলের স্মৃতি।

বন দফতরের তরফে জানা গিয়েছে, উত্তরাখণ্ডের প্রায় ৭১.০৫ শতাংশ অঞ্চলই বনভূমি। দাবানলের জেরে চারদিন ধরে ক্রমাগত জ্বলতে থাকায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে কুমায়ুন অঞ্চলের জঙ্গলগুলি। কুমায়ুন ছাড়াও এই দাবানলের জেরে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে আলমোরা, নৈনিতাল, দেরাদুন, পউরি গাড়ওয়াল ও তেহরি। জানা গিয়েছে, ঝোড়ো হাওয়ার কারনেই এই আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে যুদ্ধকালীন তৎপরতায় কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন দমকলবাহিনী ও বনকর্মীরা। তাঁদেরও প্রচন্ড পরিমানে বেগ পেতে হচ্ছে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে। 

বন দফতার সুত্রের খবর, ভারতের বিভিন্ন প্রজাতির পাখির মধ্যে অর্ধেকের বেশি প্রজাতির পাখির বিচরণ এই উত্তরাখণ্ডের জঙ্গল। এই অরণ্য রয়েছে জীব-বৈচিত্র। দাবানলে প্রাণ হারিয়েছে বহু বিরল প্রজাতির প্রাণী সহ বহু দুর্লভ গাছও। সরকারি হিসেব অনুসারে, গত দুদিনেপাঁচ হেক্টর বনভূমি পুড়ে ছাঁই হয়ে গিয়েছে। ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে লক্ষাধিক গাছ ও প্রাণী। গত চার দিনে এমই ধরনের প্রায় ২০টি ঘটনা ঘটেছে বলে খবর।

 

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons