লকডাউনে বেহাল অর্থনীতি, এবার ৬০০ জন কর্মী ছাঁটাই করল উবর

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক :  লকডাউনের মধ্যে বেহাল দশা দেশের অর্থনীতির। এই পরিস্থিতিতে নিজদের খরচ কমাতে একাধিক সংস্থা কর্মী ছাঁটা্ইয়ের পথে হাঁটছে। ইতিমধ্য়েই ওলা সংস্থার ১৪০০ জন কর্মী তাঁদের কাজ হারিয়েছেন। এবার সেপথে হেঁটেই ৬০০ কর্মীকে ছাঁটাই করা হল উবের ইন্ডিয়ার তরফে। 

এবিষয়ে উবরের ভারত ও দক্ষিণ এশিয়ার প্রেসিডেন্ট প্রদীপ পরমেশ্বরণের তরফে এদিন একটি বিবৃতি দেওয়া হয়। সেখানে বলা হয়েছে, ‘কোভিড এর প্রভাব এবং পরিস্থিতি অনিশ্চিত হয়ে ওঠার জন্য কর্মী-সংখ্যা কমানোর রাস্তায় হাঁটা ছাড়া উপায় নেই সংস্থার সামনে।’ মঙ্গলবার উবের সংস্থার তরফে বলা হয়, করোনার জন্য অর্থিকভাবে সংকটের মুখে পড়েছে উবর ইন্ডিয়া সংস্থা। তাই তারা প্রায় ৬০০ জন পূর্ণ-সময়ের কর্মচারীদের ছাঁটাই করতে বাধ্য হচ্ছে।

দেশজুড়ে বর্তমানে তৃতীয় দফায় চলছে লকডাউন। তাই নিজেদের সংস্থার কথা চিন্তা করে ইতিমধ্যেই মাত্র ৩ মিনিটের একটি ভিডিও কলে বিশ্বের ৩৫০০ কর্মীকে ছাঁটাই করেছিল উবর। যার ফলে কম সমালোচনার মুখেও পড়তে হয়নি এই অ্য়াপ ক্যাব সংস্থাকে। দেশজুড়ে এই ছাঁটাই পর্বের মাঝেই তালিকায় নতুন সংযোজন হল  উবের ইন্ডিয়ার কর্মী ছাঁটাইয়ের এই পদক্ষেপ।

সম্প্রতি উবরের তরফে জানানো হয়েছিল, বিশ্বজুড়ে এই সংস্থার মোট ২৩ শতাংশ কর্মীকে বরখাস্ত করা হবে। আর যার ফলে দেশজুড়ে মোট ৭ হাজার কর্মী ছাটাই হবে বলেই আশঙ্কা। তবে ছাঁটাই করা কর্মীদের কথা চিন্তা করে ১০ সপ্তাহের অগ্রিম বেতন দেওয়া কথা জানানো হয়েছে সংস্থার তরফে। পাশাপাশি আরও ৬ মাসের জন্য কর্মীদের স্বাস্থ্য বিমা পরিষেবার কথাও বলা হয়েছে। এমনকি সংস্থার তরফে দেওয়া ল্যাপটপও কর্মীদের রেখে নিতে বলেছে এই অ্যাপ ক্যাব সংস্থা। যদি তাঁদের নতুন কাজের কোন ব্যবস্থা করা যায় সেবিষয়েও নজরদারি থাকবে সংস্থার। এমনটাই এদিন জানিয়েছে উবর। 

 

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons