একের পর এক রাজ্যে থাবা, করোনার মধ্যেই এবার পঙ্গপাল আতঙ্কে মহারাষ্ট্র

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : করোনার মাঝেই দেশের বিভিন্ন প্রান্তে এক এক করে বাড়ছে নতুন নতুন আতঙ্ক। ইতিমধ্যেই আমফানের জেরে ব্যপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বাংলায়। এবার ফের নতুন করে বিভিন্ন রাজ্যে গিয়ে হামলা চালাতে শুরু করেছে পঙ্গপালের দল। ইতিমধ্যেই এি পতঙ্গ জয়পুর, মধ্যপ্রদেশ, উত্তরপ্রদেশে তাণ্ডব চালিয়েছে। এবার সেই দল নতুন করে হানা দিয়েছে মহারাষ্ট্রে। যার জেরে এবার মাথায় হাত পড়েছে কৃষকদের। পাশাপাশি এই ঘটনায় আশঙ্কা প্রকাশ করেছে মহারাষ্ট্র প্রশাসনও।

একেই করোনার আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে মাহারাষ্ট্রে। এবার তার মধ্যেই নতুন করে পঙ্গপাল আতঙ্ক যেন রাজ্যের প্রশাসনের কাছে প্রধান চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। এবিষয়ে রাজ্যের যুগ্ম কৃষি আধিকারিক রবীন্দ্র ভোঁসলে বলেন, “মহারাষ্ট্রে অমরাবতী জেলা থেকে এই রাজ্যে প্রবেশ করেছে। পরে পঙ্গপালের দল ওয়ারধা ও নাগপুরে প্রবেশ করে হামলা চালাবে। কেন্দ্রের তরফ থেকে কীটনাশকের একটি দল পতঙ্গের গাতিবিধি সম্পর্কে আমাদের বারবার তথ্য দিচ্ছে। আমরা সেই তথ্য গ্রামের কৃষকদের কাছে পৌছে দিয়ে তাদের সতর্ক করার চেষ্টা করছি। শুধুমাত্র রবি শস্য নয় সবধরণের ফসলের জন্য এই পতঙ্ক অত্যন্ত ক্ষতিকারক।” তিনি আরও বলেন, “স্বস্তি কথা একটাই যে, এই পতঙ্গের দল রাতে কথনও ক্ষেতে হামলা চালায় না। দিনের বেলাতেই এরা হাওয়ার গতিবেগের সঙ্গে সামঞ্জস্যতা বজায় রেখে এক স্থান থেকে আরেক স্থানে যায়। আমি ব্যক্তিগতভাবে এই বিষয়ে খেয়াল রাখছি।”

পঙ্গপাল যে রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় তান্ডবলীলা চালাতে পারে তা বিবেচনা করে আগে থেকেই জেলাগুলিকে সতর্ক করা হয়েছিল। এমনকি ক্ষেতে ও ফসলে রাসায়নিক স্প্রে করার জন্য একটি দলও নামানো হয়েছে। যাতে এই সংকটের মুহূর্তে যাতে কোনভাবেই এই পঙ্গপাল ফসলের ক্ষতি করতে না পারে তার জন্য রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় পতঙ্গের দলকে তাড়াতে রাসায়নিক স্প্রে করা হচ্ছে। কিন্তু উত্তরপ্রদেশ, গুজরাট, মধ্যপ্রদেশের পর মহারাষ্ট্রে প্রবেশ করে যে এই পঙ্গপালের দল অনায়াসেই হামলা চালাবে তা বলাবাহুল্য। যার জেরে এখন চিন্তায় কপালে ভাঁজ পড়েছে কৃষক থেকে শুরু করে রাজ্যের প্রশানেরও।

 

 

 

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons