১ জুন থেকে চালু হচ্ছে প্যাসেঞ্জার ট্রেন, বৃহস্পতিবার থেকেই শুরু অনলাইন বুকিং

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : করোনা কবলে বিধ্বস্ত গোটা দেশ। সংক্রমণ ঠেকাতে ১৮ মে থেকে দেশজুড়ে জারি হয়েছে চতুর্থ দফার লকডাউন। আগামী ৩১ মে শেষ হবে সেই লকডাউনের মেয়াদ। তারপরে পেল লকডাউন বাড়ানো হবে কিনা সেবিষয়ে এখনই কিছু জানা যায়নি। তবে এই পরিস্থিতির মধ্যেই আগামী ১ জুন থেকে ২০০টি প্যাসেঞ্জার ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হল ভারতীয় রেলের তরফে। আইআরসিটিসি-এর ওয়েবসাইটেই বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টা থেকে বুকিং শুরু করে দেওয়া হয়েছে। এসি, নন-এসি কোচ চলবে বলে জানা গিয়েছে। 

এদিন রেলের তরফে এবিষয়ে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে, সেখানে বলা হয়েছে অনলাইনে টিকিট বুকিংয়ের ক্ষেত্রে কিছু নিয়ম রয়েছে। যেমন ট্রেন যাত্রার সর্বাধিক ৩০ দিন আগে এবং সর্বনিম্ন ২ ঘন্টা আগে পর্যন্ত অনলাইনে টিকিট কাটা যাবে। ট্রেন ধরার জন্য কমপক্ষে ৩০ মিনিট আগে স্টেশনে পৌঁছে যেতে হবে সমস্ত যাত্রীদের। স্টেশনে যাত্রীদের স্ক্রিনিং করিয়ে তবেই ট্রেনে চড়তে দেওয়া হবে যাত্রীদের। ওয়েটির লিস্টে থাকা কোন যাত্রীকে ট্রেনে চড়তে দেওয়া হবেনা। যাঁদের চিকিট নিশ্চিত থাকবে শুধুমাত্র তাঁরাই ট্রেনে চড়ার অনুমতি পাবেন। 

রেলের তরফে জারি হওয়া বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, যদি কোন যাত্রীর শরীরে করোনার সংক্রমণ মেলে সেক্ষেত্রে তাঁর পুরো টিকিটের মূল্য তাঁকে ফিরিয়ে দেওয়া হবে। ট্রেনে যাত্রাকালীন সকলকে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক। এছাড়া সংস্ত যাত্রীর ফোনে আরোগ্য সেতু অ্যাপ থাকতেই হবে। খাবারের জন্য স্টেশনে খোলা থাকবে ফুড স্টল। তবে সেখানে প্যাকেটজাত খাবারই বিক্রি করা হবে।

প্রসঙ্গত, ৩০ জুন পর্যন্ত সমস্ত দেশে প্যাসেঞ্জার ট্রেন বাতিল করার কথা ঘোষাণা করেছিল রেল। সেই সমস্ত যে সমস্ত যাত্রীরা টিকিট কেটেছিলেন তাঁদের সকলের টিকিটের দাম ফেরত দেওয়া হয় রেলের তরফে।

 

 

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons