করোনা মোকাবিলায় আর্থিক প্যাকেজের বিস্তারিত বিবরণে নির্মলা সীতারমন

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী ২০ লক্ষ কোটি টাকার আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন৷ আজ বুধবার কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন সেই প্যাকেজ কোন কোন খাতে বরাদ্দ করা হচ্ছে, তা বিস্তারিত জানাচ্ছেন৷ অর্থমন্ত্রী জানালেন, ১৪টি আর্থিক সংস্কার মূলক প্যাকেজ ঘোষণা করা হচ্ছে৷ ৬টি ক্ষিুদ্র, মাঝারি ও কুটির শিল্পের জন্য, ২টি ইপিএফও, দুটি এনবিএফসি, মিউচুয়াল ফান্ড, একটি কন্ট্র্যাক্টরদের জন্য, একটি আবাসন শিল্প ও আরেকটি করের ক্ষেত্রে৷বুধবার জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেখানেই তিনি আত্মনির্ভর ভারত গড়ার ডাক দেন। বিশেষ আর্থিক প্যাকেজের ঘোষণা করেন।

 

>২০১৯-২০ আর্থিক বছরের আয়কর রিটার্নের সময়সীমা ৩১ জুলাই থেকে বাড়িয়ে ৩১ অক্টোবর করা হল

 

 >২০০ কোটি পর্যন্ত সরকারি টেন্ডারে ‘গ্লোবাল টেন্ডার’ আপাতত বন্ধ রাখা হল।

 

>ইপিএফ-ও ছাড়ের ফলে বেসরকারি কর্মীদের হাতে বেশি টাকা বেতন আসবে৷

>করদাতাদের ১৮,০০০ কোটি টাকা রিফান্ড দেওয়া হবে। এর ফলে বকেয়া রিফান্ড মেটাতে সুবিধে পাবেন ১৪ লাখ করদাতা।

>MSME-সহ ৩ লক্ষ কোটি ব্যবসার সুবিধের জন্য স্বয়ংক্রিয় ঋণ দেওয়া হবে, ২০২০ সালের ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত এটি বৈধ থাকবে।

>টিডিএস ২৫ শতাংশ কমিয়ে দেওয়া হল। চলতি আর্থিক বছরের জন্য তা কার্যকর হল।

>ঋণের উপর এক বছরের মোরেটরিয়াম ঘোষণা কেন্দ্রের।

 

>কেন্দ্রের ৩ লক্ষ কোটি টাকার আর্থিক প্যাকেজে ৪৫ লক্ষ ইউনিট ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প ইউনিট উপকৃত হবেন

 

>নন-ব্যাঙ্কিং আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলির জন্য ৩০ হাজার কোটি টাকার বিশেষ লিকুইডিটি স্কিম ঘোষণা করলেন অর্থমন্ত্রী৷ আরবিআই ওই প্রতিষ্ঠানগুলিকে নগদের জোগান দেবে৷ তার গ্যারান্টি নেবে কেন্দ্রীয় সরকার৷

 

>যাঁদের মাইনে ১৫ হাজার টাকার কম, তাঁদের আগামী তিনমাস পিএফ-এর টাকা সরকার দেবে৷ তাঁদের মাইনে থেকে কাটা হবে না৷

 

>পিএফ বাবা বেসরকারি কর্মীদের বেতন থেকে আগামী ৩ মাস ১০ শতাংশ কাটা হবে৷ ১২ শতাংশের বদলে ১০ শতাংশ পিএফ কাটা হবে৷

 

>ঋণের জন্য কোনও গ্যারান্টি ফি লাগবে না৷

 

>৪ বছরের জন্য ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পকে ঋণ৷ এনপিএ আওতায় পড়ে যাওয়া ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পকেও ঋণ দেওয়া হবে৷

 

>ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের জন্য ৩ লক্ষ কোটি টাকা ঋণের ঘোষণা ৷ 

 

 

 

 

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons