“লকডাউনেও কর্মীদের বেতন দিচ্ছি”, সরকারকে পাশে দাঁড়ানোর আবেদন বিজয় মালিয়ার

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : ভারতীয় ব্যাঙ্ক থেকে কোটি কোটি টাকি ঋণ নিয়ে দেশ ছেড়েছেন  বিজয় মালিয়া। কিন্তু করোনা জেরে সারা দেশ জুড়ে লকডাউন চলায় ভারত সরকারে তরফে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে তাঁর সমস্ত কোম্পানি। আর এই পরিস্থিতিতে নিজের কর্মচারীদের বেতন দিতে হিমসিম খাচ্ছেন কিংফিশার এয়ারলাইন্সের কর্ণধার। তাই এবার সাহায্য চেয়ে সরকারকে পাশে দাড়ানোর আবেদন জানালেন বিজয় মালিয়া। 

বিপুল টাকা ঋণ নেওয়ার পর বিজয় মালিয়া দেশ ছেড়েছেন ২০১৬ সালে। সুপ্রিম কোর্টে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট একটি মামলাও করে। যেখানে তাঁর সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার দাবি করা হয়। ব্রিটেন থেকেই বর্তমানে বিজয় মালিয়া আইনি লড়াই লড়ছেন। তবে এরই মধ্য়ে মঙ্গলবার কেন্দ্র সরকারের উদ্দেশ্যে একটি ট্যুইট করেন তিনি। সেখানে তাঁকে সাহায্য করার জন্য আবেদন জানান তিনি। পাশাপাশি সেই ট্যুইটে তিনি লেখেন, “ভারত সরকারের লকডাউনের সিদ্ধান্তকে আমি স্বাগত জানাচ্ছি । এই পরিস্থিতিতে আমার সব প্রতিষ্ঠানের উত্‍পাদন বন্ধ করা হয়েছে। কিন্তু তাও আমি কোনও কর্মীর বেতন বন্ধ করিনি। কিন্তু এবার সরকারি সাহায্যের প্রয়োজন।”

তবে একইসাথে এদিন আরও একটি পোস্ট করেন বিজয় মালিয়া। সেখানে তিনি জানান, কিংফিশার এয়ারলাইন্সের জন্য তিনি যে টাকা নিয়েছিলেন, তা তিনি ফিরিয়ে দিতে চান। কিন্তু ব্যাঙ্ক বা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট তাঁর এই আবেদনের কোন যোগ্য জবাব দেননি বলেও এদিন জানান তিন। তবে আজ সত্যি তাঁর সরকারের সাহায্য প্রয়োজন। এরপরেই অর্থমন্ত্রীকে তাঁর এই আবেদনে সাড়া দেওয়ার আর্জি জানান কিংফিশার কর্তা।

 
Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons