ভারতে প্রথম তৈরি হল কোভিড-১৯এর টেস্ট কিট

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : মঙ্গলবার মধ্যরাত থেকে গোটা দেশ লকডাউন। করোনার আতঙ্কে সবাই ‌যবুথবু, বাড়িতে বাড়িতে নিত্য প্রয়েজনীয় জিনিসের ‌যোগান রাখায় ব্যস্ত সকলে। আবার কেউ দুরে থাকা আত্মিয়ের ভালো থাকা নিয়ে চিন্তিত। প্রশাসনের তরফ তেকে সমস্ত রকম প্রচেষ্টা চলছে তৎপরতার সাথে। এর মধ্যেই এলসুখবর।  ভারতে প্রথম তৈরি হল করোনা ভাইরাস পরীক্ষার টেস্ট কিট।

সাধারণ মানুষের সিংহভাগ সংক্রমণের ভয়ে সম্ত্রস্ত, ফলে সাধারণ অসপস্থতাতেই তাঁরা ছুটছিলেন হাসপাতালে করোনার আশঙ্কায়। অন্যদিকে টেস্ট কিটের সংখ্যী সীমাবদ্ধ থাকায় সকলকে পরীক্ষাও করা ‌যাচ্ছিল না। সরকারের তরফ থেকে ঠিক করে দেওয়া হয়েছে একটি চেচলিস্ট, এই লিস্টের সথে উপসর্গ মিললে তবেই করা হচ্ছে করোনার পরীক্ষা।  আবার সেই পরীক্ষার ফল পেতে অপেক্ষা করা হচ্ছিল বেশ কয়েকদিন।  এতে দুশ্চিন্তা বাড়ছিল রোগী ও চিকিণসক দুই পক্ষেরই।

এখনও প‌র্যন্ত সেন্ট্রাল ড্রাগস স্ট্যান্ডার্ড কন্ট্রোল অর্গানাইজেশনের তরফ থেকে,  শুধুমাত্র আহমেদাবাদের ইন্ডীয়া ন্যাশানাল ইন্স্টিটিউট অফ ভাইরোলজি-র কাছেই ছিল কোভিড-১৯ এর টেস্ট কিট বানানোর অনুমতি।  তবে এবার পুনের একটি মলিকিউলার ডায়গনেস্টিক সংস্থা, মাই ল্যাবও পেল ছাড়পত্র এবার তাঁরাও বানাবে কোভিড – ১৯ এর টেস্ট কিট।

এই সংস্থার তরফ থেকে জানানো হয় আগে ‌যে নোভেল ভাইরাসের পরীক্ষায় সময় লাগতো প্রায় ৪ ঘন্টা এখন এই কিটের সাহা‌য্যে এই টেস্টে সময় লাগবে শুধুমাত্র ২ ঘন্টা ৩০ মিনিট।  মাই ল্যাবের কর্ণধার গৌতম ওয়াংখেড়ে জানান সংবাদমাধ্যমকে। 

বর্তমানে আইসিএমআরের তরফ তেকে শুধুমাত্র সেই সমস্ত মানুষের পরীক্ষা করা হচ্ছিল ‌যাঁদের আক্রান্ত এলাকাতে ট্রাভেল হিস্ট্রি আছে। ‌যার জেরে লক্ষাধিক মানুষের মধ্যে পরীক্ষা হচ্ছিলল শুধুমাত্র ১১৫ জনের। তবে মাইল্যাবের এই সাফল্যের ফলে পরীক্ষা করার সংখ্যা আরও বাড়বে বলে আশা করা হচ্ছে।

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons