দিল্লির হিংসা নিয়ে অবশেষে সংসদে মুখ খুললেন অমিত শাহ

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : বুধবার সংসদে অবশেষে দিল্লির হিংসা নিয়ে মুখ খুললেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। দিল্লির উত্তপ্ত পরিস্থিতিকে সামাল দিতে দিল্লি পুলিশের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হন শাহ। তাঁর কথায়, উত্তর-পূর্ব দিল্লির উত্তপ্ত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালকে বিশেষ দায়িত্ব দেওয়া হয়। আর তারপর ২৬ ফেব্রুয়ারি থেকে আর নতুন করে কোন হিংসার ঘটনা ঘটেনি। ৩৬ ঘন্টার মধ্যেই রাজধানীর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে দিল্লি পুলিশ।

হোলির পরেই দিল্লি হিংসা নিয়ে সংসদে আলোচনা করবেন বলে জানিয়েছিলেন অমিত শাহ। সেই কথা রেখেই এদিন অধিবেশনে দিল্লির দাঙ্গা বিষয়ে মুখ খললেন শাহ। ‌যদিও অধিবেশনের শুরুতে এদিন বিরোধীরা একহাত নেন সরকারকে। আক্রমণের সুর এতটাই তীব্র হয় ‌যে শেষ প‌র্যন্ত মুলতুবি  করা হয় অধিবেশন। ফের সন্ধেবালা সংসদে দিল্লি হিংসা নিয়ে বক্তব্য রাখেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।  এদিন দিল্লি পুলিশের বুদ্ধিমত্তা ও সাহসিকতার  প্রশংসা করে তিনি বলেন, দিল্লির এই হিংসার পেছনে ছিল গভির ষড়‌যন্ত্র। এরপরেই এক এক করে তিনি বিরোধীদের প্রশ্নের উত্তর দেন। কেন উত্তর-পূর্ব দিল্লির দাঙ্গা বিধ্বস্ত এলাকায়  ‌যাননি অমিত শাহ? বিরোধীদের এই প্রশ্নের জবাবে শাহ বলেন, তিনি নিজে এলাকা পরিদর্শনে গেলে পুলিশ তাঁকে নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়ত। ফলে তাঁদের কাজে ব্যাঘাত ঘটত। তাই পুলিশ ‌যাতে মনবলের সাথে নিজেদের কাজ করতে পারে তাই তিনি সেখানে না গিয়ে অজিত দোভালকে পাঠিয়েছিলেন।  এখানেই শেষ না করে তিনি আরও জানান, দিল্লির পরিস্থিতির প্রতি নজর রাখতেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের তাজমহল সফরেও  তিনি উপস্থিত থাকেননি।  

এদিন সংসদের অধিবেশনে বিরোধীদের আশ্বস্ত করে শাহ বলেন, এই হিংসার ঘটনার সাথে ‌যে বা ‌‌যারা জড়িত, তাঁদের কাউকেই ছেড়ে দেওয়া হবেনা। পাশাপাশি কোন নিরপরাধ ব্যক্তিও শাস্তি পাবেন না। ইতিমধ্যেই দিল্লির  দাঙ্গার ঘটনায় ষড়যন্ত্রের দাবি তুলে বিশেষ তদন্তকারী দল মামলাও রুজু করা হয়েছে। আইবি কর্মী অঙ্কিত শর্মা ও পুলিশ কনস্টেবল রতন লালের খুনিদের এদিন চিহ্নিত করারও আশ্বাস দিয়েছেন তিনি।       

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons