অভিমানী বিধায়কদের ফেরাতে মরিয়া কংগ্রেস

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : প্রায় ১৮ বছরের সম্পর্কের বিচ্ছেদ, পারিবারিক ইতিহাসও খানিকটা একইরকম। কংগ্রেস নেতা জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়ার ইস্তফা একটি বড়সড় ধাক্কা দিয়েছে মধ্যপ্রেদেশে কংগ্রেসের গড়ে। শুধু সিন্ধিয়াই না, তার সাথে সাথে সিন্ধিয়া অনুগামী প্রায় ২০ জন বিধায়কও ইস্তফা দিয়েছেন কংগ্রেস নেত্রীর সনিয়া গান্ধীর কাছে। এর ফলে দেশের মধ্যভাগে রংবদলের আশঙ্কা করছে রাজনৈতিক মহল।

অন্যদিকে কমল নাথের সরকার টিকিয়ে রাখতে মরিয়া চেষ্টা করছে কংগ্রেস। অরই মধ্যে, মধ্যপ্রদেশ কংগ্রেসের ট্যুইটার হ্যান্ডেল থেকে ট্যুইট করে বলা হয়, কংগ্রেস সরকার একতায় বিশ্বাসী এবং সম্পুর্ন নিরাপদ। বিজেপির বিভেদের রাজনীতি কোনোভাবেই প্রভাবিত করতে পারবেনা কংগ্রেসকে। 

প্রসঙ্গত, বুধবার অভিমানী বিধায়কদের মান ভাঙাতে তাদের নিয়ে ‌যাওয়া হচ্ছে রাজস্থানে। কমলনাথের সরকারের ৯২ জন বিধায়ককে উড়িয়ে নিয়ে ‌যাওয়া হল সেই রিসর্টে ‌যেখানে গতবছর মহারাষ্ট্র সরকার গঠনের সময় নিয়ে ‌যাওয়া হয়েছিল। এছাড়া কংগ্রেসের ‌যে ২০ বিধায়ক বেঙ্গালুরুর হোটেলে ছিলেন তাঁদের কাছে সজ্জন সিং বর্মা ও গোবিন্দ সিং কে দলের তরফ থেকে পাঠানো হয় তাঁদের সাথে আলোচনার উদ্দেশ্যে।

জ্যোতিরাদিত্যর বিজেপিতে ‌যোগ দেওয়ার গুজব এখন শুধুই সময়ের অপেক্ষাতে পরিবর্তিত হয়েছে। এমনকি সুত্রের খবর আজই তিনি ‌যোগ দিতে পারেন অমিত শাহের সেনাদলে। বিজেপি সুত্রে খবর, আজ দুপুরে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডার উপস্থিতিতে দলে ‌যোগ দেবেন তিনি।    

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons