আর্থিক তছরূপের মামলায় গ্রেফতার ইয়েস ব্যাঙ্কের প্রতিষ্ঠাতা

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : ইয়েস ব্যাঙ্কের প্রতিষ্ঠাতা ও কর্ণধার রানা কাপুরকে গ্রেফতার করল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। আর্থিক তছরুপের অভিযোগে শনিবার রাত তিনটে নাগাদ মুম্বইয়ে তাঁকে গ্রেফতার করা হয়। শনিবার রাতে রানা কাপুরকে প্রায় ৩০ঘন্টা জেরা করেন ইডি আধিকারিকরা। জেরায় ইয়েস ব্যাঙ্কের কর্ণধার সহযোগিতা করেননি বলেই অভিযোগ তার জেরেই তাঁকে গ্রেফতার করার সিদ্ধান্ত নেন কেন্দ্রীয় সংস্থার আধিকারিকরা।

রবিবারই রানা কাপুরকে আদালতে পেশ করা হবে এবং জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিজেদের হেফাজতে নেওয়ার আর্জি জানাবে ইডি।

ডিএইচএফএল, ডিওআইটিইউভি সহ বেশ কয়েকটি কর্পোরেট সংস্থাকে ঋণ পাইয়ে দেওয়ার বিনিময়ে রানা কাপুরের স্ত্রীর অ্যাকাউন্টে ঘুষের টাকা জমা করেন,এমনই দাবী করেন তদন্তকারীরা।

 

গত বৃহস্পতিবার, ইয়েস ব্যাঙ্কে লেনদেনের আর্থিক মূল্য বেঁধে দেয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া। নির্দেশ দেওয়া হয় যে, ৫০ হাজার টাকার বেশি তোলা যাবে না। আগামী এক মাসের জন্যে এই নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। পাশাপাশি আরবিআইয়ের নির্দেশিকায় ব্যাঙ্কের সমস্ত অনলাইন এবং মোবাইল ব্যাঙ্কিং পরিষেবা বন্ধের কথাও জানানো হয়।

ইয়েস সঙ্কটের পর পরই শুক্রবার কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ জানান আমানতকারীদের অর্থ সুরক্ষিত থাকবে।

 দ্রুত এই পরিস্থিতি থেকে মুক্তি মিলবে। ইয়েস ব্যাঙ্কের দুরাবস্থা প্রসঙ্গে কংগ্রেস অবশ্য মোদী সরকারকেই দুষেছিল। টুইটারে মোদীকে সরাসরি আক্রমণ করে রাহুল গান্ধী লিখেন, ‘‘নো ইয়েস ব্যাঙ্ক, মোদী ও তাঁর ভাবনা দেশের অর্থনীতিকে ধ্বংস করছে’’।

এদিকে, ইয়েস ব্যাঙ্ককে বাঁচাতে পাশে দাঁড়িয়েছে স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া। ইয়েস ব্যাঙ্কেরর ৪৯ শতাংশ শেয়ার কিনতে চলেছে স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া বা এসবিআই। শনিবার এই সিদ্ধান্তের কথা জানান এসবিআইয়ের চেয়ারম্যান রজনীশ কুমার। চেয়ারম্যানের ঘোষণা সমস্যা জর্জরিত ইয়েস ব্যাঙ্কের শেয়ার কিনতে এসবিআইয়ের ব্যায় হবে ২, ৪৫০ কোটি টাকা।

 

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons