লোকসভার অধিবেশনে হৈচৈ, সাসপেন্ড ৭ কংগ্রেস সাংসদ

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : লোকসভায় নিয়ম লঙ্ঘনের জেরে এবার ৭ জন সাংসদকে বরখাস্ত করা হল। বৃহস্পতিবার সংসদকক্ষে দিল্লি হিংসা নিয়ে আলোচনা প্রসঙ্গে হট্টগোল পাকিয়ে দেওয়ার অভিযোগ  ওঠে ৭ কংগ্রেস সাংসদের বিরুদ্ধে। সাংসদরা কক্ষের নিয়ম বিরোধী আচরণ করায় বেজায় চটেছেন স্পিকার ওম বিড়লা। ‌যার জেরে কংগ্রেসের গৌরব গগৈ,  ডিন কুরিয়াকোসে, আর উন্নিথন, বেন্নি বেহনান,  মানিকম টেগোর, টি এন প্রথাপন,  ও গুরজিত সিংরাকে সাসপেন্ড করেন তিনি।

বৃহস্পতিবার লোকসভায় সাংসদদের এই আচরণের জেরে লোকসভা কাজ অসমাপ্ত রেখেই বেরিয়ে ‌যান লোকসভার অধ্যক্ষ। তবে এটাই প্রথমবার নয়,এর আগে বুধবারও সাংসদদের আচরণে অসন্তুষ্ট বোধ করেন তিনি। ফের বৃপস্পতিবার বিক্ষোভ দেখানোর ঘটনায় ৭ কংগ্রেস সাংসদকে সাসপেন্ড করা হল।এমনকি চলতি অধিবেষশনেও তাঁরা থাকতে পারবেননা বলে জানানো হয়েছে।

জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবারও দিল্লি হিংসা নিয়ে আলোচনা চেয়ে বিরোধীরা বিক্ষোভ দেখালে দুপুরেই মুলতুবি হয়ে যায় লোকসভা। পর পর এইভাবে লোকসভা  উত্তপ্ত হওয়ায় অধ্যক্ষের সঙ্গে কথা বলতে যান বিজেপি নেতা বি মহতাব। তবে তিনি সাংসদ মুলতুবি না রেখে বাকি সাংসদদের কক্ষের ভিতরে প্রবেশের অনুমতি চান এবং একইসাথে করোনা ভাইরাস ও দিল্লি হিংসা নিয়ে আলোচনার প্রস্তাবও রাখেন। বি মহতাবের কথায়, সংসদে বাজেট অধিবেশন শুরু হয় ২ মার্চ থেকে। তখন থেকেই সাংসদদের আচরণে ক্ষুব্ধ ছিলেন অধ্যক্ষ।     

বাজেট সেশন চলার সময় অধ্যক্ষের কথাকে কোনরকম ভাবে পাত্তা না দিয়েই বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন সাংসদেরা। এমনকি স্পিকারের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তুলতে ছাড়েননি কিছু সাংসদরা। ‌যার জেরে বৃহস্পতিবার গৌরব গগৈ-সহ ৭ জন কংগ্রেস সাংসদকে বরখাস্ত করতে বাধ্য হন অধ্যক্ষ।  

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons