জাতীয় সঙ্গীত গাইতে জোর পুলিশের, মৃত্যু ‘আহত’ ‌যুবকের

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : এখনও ঠান্ডা হয়নি দিল্লির উত্তপ্ত পরিস্থিতি। এর আগে দিল্লির হিংসার বলি হয়েছেন ৪৩। এবার সে দলে নাম লেখালেন আরও একজন। ফাইজান নামে মৃত ওই ‌যুবক করদমপুরীর বাসিন্দা।

বছর ২৩-এর ওই ‌যুবক সহ আদিন মোট চারজন আহত হন দিল্লির হিংসার ঘটনায়। সেই অবস্থায় তাঁদের সকলকে জাতীয় সঙ্গীত গাইতে বাধ্য করে পুলিশ। এরপরেই বৃহস্পতিবার গুরু তেগবাহাদুর হাসপাতালের ফাইজানকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসাকরা।

এদিন দিল্লি হামলার একটি ভিডিও ভাইরাল হয়। সেখানে দেখা ‌যাচ্ছে, রাস্তার মধ্যে আহত অবস্থায় পড়ে রয়েছে ৫ ‌যুবক। অর তাঁদের সকলকে ঘিরে ধরে জাতীয় সঙ্গীত গাওয়ার জন্য জোর করছে পুলিশ। এমনকি ঠিক মতো করে গাওয়ার জন্যও তাঁদের বলতে থাকে পুলিশ। তবে রাস্তাতেই শেষ নয়, ফাইজানকে নাকি থানাতে নিয়ে গিয়েও পুলিশ মারধর করেছে বলে অভি‌যোগ করেন ফাইজানের মা।

এপ্রসঙ্গে ফাইজানের মা বলেন, ফাইজানের সঙ্গে অন্যদেরও মারধর করে পুলিশ। রড দিয়েও মারা হয় ফাইজানকে। ভেঙে দেওয়া হয় তাঁর পা। ওর চেনা‌ পরিচিত একজন আমাকে খবর দিলেই আমি জ্যোতি কলোনি থানায় যাই। রাত একটা পর্যন্ত অপেক্ষা করার পর ছেলের সাথে দেখা করতে দেয়।

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons