দর্শকের ইমেইলে জানতে পারলেন তিনি ক্যানসার আক্রান্ত, আপ্লুত এই মার্কিন সাংবাদিক

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : করোনা আবহে বিশ্বজুড়ে জরুরী পরিষেবার সাথে ‌যুক্ত সমস্ত কর্মীদেরই এখন নিঃশ্বাস নেওয়ার সময় নেই। স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশ কর্মীদের সাথে সাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করে চলেছে সংবাদ মাধ্যমও। সংবাদ মাধ্যমের কর্মীরাও তাঁদের জীবন বিপন্ন করে এই বিশ্বব্যপী বিপদের মধ্যে নিষ্ঠা ভরে কাজ করে চলেছে তারা। তেমন ভাবেই রোজকার মত কাজে ‌যান ফ্লোরিডার একটি চ্যানেলের সাংবাদিক ভিক্টেরিয়া প্রাইস। কিন্তু সেই সাধারণ দিনটিই তার জীবনে অসাধরণ হয়ে উঠলো!

ভিক্টোরিয়ার এক দর্শক তার গলার কাছে একটি লাম্প বা মাংস পিন্ড দেখতে পান, ‌যা স্বাভাবিক না। এটিই দেখে তাঁর সন্দেহ হওয়াতে ভিক্টোরিয়াকে ইমেইল মারফত সেই প্রশ্ন করেন এক দর্শক। এই মেইল পাওয়ার পরই তা নজরে আসে ভিক্টোরিয়ার। তিনি চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। এবং বিভিন্ন পরীক্ষা নিরিক্ষার পর জানা গেল কর্কট বাসা বেঁধেছে ভিক্টোরিয়ার শরীরে। ঐ লাম্প আসলে থাইরয়েড ক্যানসার। এর সাথে চিকিৎসক তাঁকে জানান, একেবারে ঠিক সময়ে চিকিৎসকের কাছে এসেছেন তিনি।

ফ্লোরিডার ট্যম্পা বে-র এক সংবাদ চ্যানেলের কর্মী ভিক্টোরিয়া। মূলত ক্রাইম ও ইনভেস্টগেশন সম্পর্কিত খবর করতেন তিনি। তবে গত কয়েকমাস করোনা আবহে বিশ্বে করোনা পরিস্থিতি সম্পর্কে খবর করছিলেন এই সাংবাদিক। এই গোটা ঘটনার কথা তিনি নিজেই তাঁর ট্যুইটারে জানান। তিনি লেখেন, চ্যানেলের মারফত দর্শকদের কাছে নানা রকম ঘটনার তথ্য পৌঁছে দি আমরা। আর এই ক্ষেত্রে ভূমিকাটিই উল্টে গেল। এই দর্শক আমার জীবনে ‌যে বেশ গুরুত্বপূর্ণ একটি ভূমিকা নিলেন তা বলাই বাহুল্য। এই দর্শককে ধন্যবাদ জানান ভিক্টোরিয়া।

তাঁর সোশ্যাল অ্যাকাউন্টে ভিক্টোরিয়া লেখেন, গোটা বিশ্বে স্বাস্থ্যের ভয়াবহ অবস্থা আর সেই খবর সাধারণের কাছে পৌঁছে দিতে গিয়ে নিজের স্বাস্থ্যের দিকে খেয়াল করা হয়নি। কাজের চাপের সঙ্গে মানিয়ে নিতে গিয়ে নিজের দিকে নজর দেওয়ার সম পাইনি আর। এই দর্শকের মেইল না পেলে হয়তো খেয়ালও করতাম না। এই মহিলা ‌যদি না আলাদা করে আমার লক্ষ্য ঐদিকে নিয়ে ‌যেতেন। ঐ দর্শকেরও একই অসুস্থতা আছে, তাঁর ভিক্টোরিয়াকে দেখেই চিহ্নিত করতে পারেন এবং তাঁকে জানান।

এরপরই চিকিৎসকের কাছে ‌যান ভিক্টোরিয়া। চিকিৎসক জানান, গলার থাইরয়েড গ্ল্যান্ডে লাম্প রয়েছে তাঁর। আগামী সোমবার এই টিউমারের মত লাম্পটির অস্ত্রপচার হবে বলে তাঁর পোস্টে জানিয়েছেন ভিক্টেরিয়া।

 

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons