মৃত্যুঞ্জয়ী হওয়ার মন্ত্র ফাঁস করলেন বিশ্বের প্রাবীনতম এই পুরুষ

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : এবার বিশ্বের প্রাবীনতম পুরুষের তকমা পেলেন 112 বছর বয়সী একজন জাপানি ব্যক্তি। একইসাথে দাবি করা হয়েছে ‘হাসি’ হচ্ছে দীর্ঘায়ু হওয়ার একমাত্র চাবিকাঠি। বুধবার গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস জানিয়েছে, ১৯০৭ সালের ৫ মার্চ টোকিওর উত্তরে অবস্থিত নিগাটায় জন্মগ্রহণ করেন চিত্তসু ওয়াতানাব নামের ওই ব্যক্তি। তাঁকে এদিন বিশ্বের প্রাবীনতম পুরুষের উপাধি দেওয়া হয়েছে। এর আগে ম্যাসাজো নোনাকা নামেরক এক ব্যক্তি এই একই রেকর্ড গড়েছিলেন, এবং তিনিও একজন জাপানি ছিলেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স ছিল 112 বছর 266 দিন। গত মাসেই তিনি মারা গিয়েছেন।

কিন্তু এই দীর্ঘায়ু লাভের পেছনে ঠিক কি রহস্য রয়েছে! এপ্রসঙ্গে ওয়াতানাবে বলেছিলেন,  দীর্ঘায়ু হওয়ার গোপন বিষয় হল “রাগ করবেন না এবং নিজের মুখে হাসি বজায় রাখুন।” জানা গিয়েছে, ওয়াতানাবে বিবাহিত এবং ৫ সন্তানের পিতা তিনি।

তবে জাপানে সর্বাধিক আয়ুর অধিকারীদের তালিকা এখানেই শেষ নয়, এই তালিকার ভুক্ত হয়েছেন এক মহিলাও। কানে তানাকা নামে ওই মহিলার বয়স 117 বছর। তিনিও জাপানের প্রাচীনতম জীবিত ব্যক্তিদের মধ্যে একজন। কানে তানাকা পরেই রয়েছেন জিরোমন কিমুরা। যিনি জুনে ২০১৩ সালে তাঁর ১১6 তম জন্মদিনের পরেই মারা গিয়েছিলেন।

গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের মতে, সর্বকালের প্রাচীনতম ব্যক্তির তকমা রেকর্ড রয়েছে ফ্রান্সের জিন লুইস ক্যালমেন্টের। ‌যিনি ১৯৯৭ সালে ১২২ বছর বয়সে মারা যান।

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons