তিন রাজ্যে মামলা ঠুকে গণনা বন্ধের চেষ্টা ট্রাম্পের

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : ভালো লড়িয়া পরাজিত! ক্রমশই এই পথেই যাচ্ছে যাচ্ছে ডোনাল্ড ট্রাম্পের রাজনৈতিক ভবিষ্যত। ইউ আর ফায়ার্ড বলে তিনি যেভাবে তাঁর রিয়েলিটে শো তে প্রতিযোগীদের বলতেন, সেভাবেই মার্কিন নাগরিকরা তাঁকে বলছেন, অনেক হল, এবার আসতে পারেন। কিন্তু অত সহজে হার মানবেন, সেরকম মানুষ নন ডোনাল্ড ট্রাম্প। তাই হারের মুখে বিভিন্ন রাজ্যে আইনি লড়াইয়ে যাচ্ছেন তিনি কোনওভাবে যদি প্রক্রিয়াটি বিলম্ব করা যায়। ইতিমধ্যেই পেনসেলভ্যানিয়া, মিশিগান ও জর্জিয়ায় ইতিমধ্যেই মামলা ঠুকেছেন তাঁর আইনীবীরা। 

পেনসেলভ্যানিয়া ও মিশিগানে, ট্রাম্প ক্যাম্পেন বলছে যে তাদের উপযুক্ত অ্যাকসেস দেওয়া হয়নি ভোট গণনার প্রক্রিয়া পর্যবেক্ষন করার জন্য। জর্জিয়ায় তাদের দাবি যে চ্যাথাম কাউন্টিতে তাদের এক অবজার্ভার দেখেছেন যে লেট ব্য়ালট মেশানো হচ্ছে মেইল-ইন ব্যালটের সঙ্গে। কোনওভাবেই বেআইনি ব্যালট গুনতে দেওয়া হবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে ট্রাম্প ক্যাম্পেন। 

ট্রাম্পের ব্যক্তিগত আইনজীবী রুডি গুলানি বলেছেন যে উইসকনসিনেও তারা মামলা ঠুকবেন কারণ তাদের ঠিক ভাবে ব্যালট গণনা দেখতে দেওয়া হয়নি। গতকালই ট্রাম্প বলেন যে তিনি জিতে গেছেন এবং শুধু কারচুপি হলেই তিনি হারতে পারেন। তারপর টুইটারে অসংখ্যবার ট্রাম্প প্রশ্ন করেছেন যে কেন মেল-ইন ব্যালট এতটা তাঁর বিরোধীকে সাহায্য করছে। 

তবে বিশেষজ্ঞদের মতে এই সব আইনি চ্যালেঞ্জ কিছুটা প্রক্রিয়াকে বিলম্ব করতে পারে, কিন্তু ফলাফল বদলাতে পারবে না। ট্রাম্প কারচুপির কথা বললেও আদালতে গিয়ে তাঁর আইনজীবীরা যেসব বিষয় তুলছেন, সেগুলি খুবই ছোটোখাটো, বিশেষ সারবত্তা নেই। 

উইসকনসিনে যেহেতু হার জিতের ব্য়বধান এক শতাংশের মধ্যে রয়েছে সেখানে পুনর্গণনার পথে যাবেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। কিন্তু তাতে কুড়ি হাজার ভোটের ব্যবধান ঘুচবে, তেমন সম্ভাবনা কম। মিশিগানেও একই দাবি করতে চায় ট্রাম্প শিবির। সেখানে ব্যবধান প্রায় ৭০ হাজার! সব মিলিয়ে ট্রাম্পের সম্ভাবনা ক্ষীণ, কিন্তু তিনি সহজে হার মানার বান্দা নন! 

 

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons