১৬ টি বাঁদরের শরীরে করোনা টিকার সফল প্রয়োগ, দেওয়া হবে ৩০,০০০ মানুষকেও

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : মোদার্না ইনকের তৈরি কোভিড -১৯ ভ্যাকসিন ১৬টি বাঁদরের শরীরে প্রয়োগ করে সাফল্য মিলল। এর ফলে এই মহামারী থেকে মানুষের সুরক্ষার ক্ষেত্রে একটি উৎসাহজনক পদক্ষেপ বলেই মনে করা হচ্ছে। নিউজিল্যান্ডের জার্নাল অফ মেডিসিন যে সমীক্ষা করেছে তার ফলাফলে দেখা গেছে যে, দুটি ইনজেকশন দেওয়ার পরেই চোখে পড়ার মতো লক্ষণ দেখা গেছে। ওই বাঁদরগুলোর মধ্যে সংক্রমণ আর একচুলও বাড়েনি। গবেষকরা মনে করছেন, এই ভ্যাকসিন যদি একইভাবে মানুষের দেহেও কাজ করে তাহলে বায়ু থেকে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ মানবদেহে ছড়ানো অনেকটাই প্রতিরোধ করা সম্ভব হবে। গবেষণার ফলাফল অনুসারে, যে সমস্ত বাঁদরের শরীরে ওই ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হয়েছে তাঁরা করোনা সংক্রমণের মধ্যে থেকেও কোনওভাবে ওই রোগে আক্রান্ত হয়নি। এমনকী ওই প্রাণীর ফুসফুসের মধ্যেও করোনার আক্রমণের কোনও প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

এই পরীক্ষায় উৎসাহিত হয়ে এবার ৩০,০০০ মানুষের শরীরেও এই টিকা প্রয়োগ করা হবে। আগামী নভেম্বর বা ডিসেম্বরেই সেটি দেওয়া হবে মানবদেহে। এই ভ্যাকসিনে আরএনএ ব্যবহার করা হয়েছে, যা করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা করতে শরীরের মধ্যে একটি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি করে। 

সারা বিশ্বে করোনা ভাইরাস মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়েছে। তবে সবচেয়ে বেশি যে দেশ এই মারণ রোগে বিপর্যস্ত হয়েছে সেটি হল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। করোনা মোকাবিলায় প্রায় ১০০টি প্রতিষেধকের ওপর পরীক্ষা-নিরীক্ষার কাজ চলছে। এর মধ্যে ৪টির ক্ষেত্রে অগ্রগতি ও সাফল্য সবচেয়ে বেশি। এগুলির বাণিজ্যিক ভাবে উৎপাদন আর চিকিৎসায় প্রয়োগ শুরু হওয়া শুধু সময়ের অপেক্ষা।

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons