অব্যাহত মৃত্যুমিছিল, মাত্র ৩ মাসে ট্রাম্পের দেশে ১ লক্ষ ছাড়াল করোনা আক্রান্তের সংখ্যা

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক :  করোনার জেরে বিশ্বের একাধিক দেশে মৃত্যুমিছিল অব্যাহত। এই মারণ ভাইরাসের করার গ্রাসে বর্তমানে বিধ্বস্ত আমেরিকা। শক্তিধর এই দেশে স্বাস্থ্য কাঠামো থেকে শুরু করে চিকিৎসা ব্যবস্থা সবকিছুই বেশ উন্নত। কিন্তু করোনার মতো এক অদৃশ্য ভাইরাস এক ধাক্কায় ট্রাম্প প্রশাসনের সেই অহংকারে জল ঢেলে দিয়েছে। এখনও পর্যন্ত ট্রাম্পের দেশে করোনা মৃতের সংখ্যা ১ লক্ষ ছাড়িয়েছে। তাই এই মুহূর্তে হাত-পা গুটিয়ে বসে দেখা ছাড়া আর কোন রাস্তা নেই সেদেশের সরকারের কাছে।

এদিন হপকিনস বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে করোনা নিয়ে একটি তথ্য প্রকাশ্যে আনা হয়, সেখান থেকে জানা গিয়েছে, বুধবার রাতেই করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১ লক্ষের গণ্ডি পেরিয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালেই আমেরিকায় মৃতের সংখ্যা ১ লক্ষ ২ হাজার। মৃতের পাশাপাশি টেক্কা দিয়ে বাড়ছে সেদেশের করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। এখনও পর্যন্ত মার্কিন মুলুকে করোনা ভাইরাসে ১৭ লক্ষ মানুষ সংক্রমিত। প্রতি ১০ লক্ষ জনসংখ্যার নিরিখে আক্রান্ত ৫ হাজার ২৭৭ জন। পাশাপাশি প্রতি ১০ লক্ষে করোনার বলি হয়েছেন ৩০৯ জন। পরিস্থিতি এমন জায়গায় এসে দাঁড়িয়েছে যে প্রশাসনের তরফেও কোন পদক্ষেপ গ্রহন করা হলেও, তা কোন কাজে লাগে লাগছেনা। তার মধ্যে চিন্তার কারন হয়ে দাঁড়িয়েছে দেশের আর্থিক সংকটের বিষয়টি। লকডাউনের জেরে সমস্ত কাজ বন্ধ থাকায় বাড়ছে দেশের বেকারত্বের পরিমাণ। লকডাউন প্রত্যাহারের জন্য দেশে শুরু হয়েছে বিক্ষোভ। এই পরিস্থিতিতে একপ্রকার নির্বাক শ্রোতার ভূমিকা পালন করা ছাড়া যেন কোন রাস্তা নেই ট্রাম্প প্রশাসনের কাছে।

করোনা ভাইরাসের জেরে একসময় মৃত্যুমিছিল শুরু হয়েছিল ইটালি, ফ্রান্স, স্পেনের মতো দেশগুলিতে। তালিকা থেকে বাদ পড়েনি ব্রিটেনের নামও। কিন্তু বর্তমানে সেই দেশগুলি পরিস্থিতি অনেকটাই নিয়ন্ত্রনে আনতে সমর্থ হয়েছে। কিন্তু আমেরিকাতে শুরু থেকে শেষ যেন একই ছন্দে তান্ডব চালিয়ে যাচ্ছে এই আণবিক্ষনিক ভাইরাস। মাত্র ৩ মাসেই ট্রাম্পের দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৭ লক্ষ। মৃতের সংখ্যাটা ছাড়িয়েছে ১ লক্ষ। যা নিসন্দেহে চিন্তার কারন হয়ে দাঁড়িয়েছে সেদেশের সরকারের কাছে। 

 

 

 

 

 
Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons