অ্যালকোহল পানে করোনা মুক্তি! ভ্রান্ত ধারণার জেরে প্রাণ হারালেন ৭০০ মানুষ

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : করোনা আবহে বেশ আতঙ্কেই দিন কাটছে বিশ্ববাসীর। কিভাবে এই মারণ ভাইরাসের কবল থেকে বিশ্বের মানুষকে রক্ষা করা যায় তা নিয়ে ইতিমধ্যেই একাধিক গবেষণা শুরু করেছেন গবেষকেরা। ঠিক কি কি উপায়ে করেনার বিরুদ্ধে লড়াই সম্ভব, সেবিষয়েও একাধিক মতামত প্রকাশ করতে দেখা গিয়েছে বিশষজ্ঞদের। কিছুদিন ধরেই শোনা যাচ্ছিল, অ্যালকোহল পান করলেই নাকি এই মারণ ভাইরাসের থাবা থেকে মুক্তি মিলবে। আর সেই ভ্রান্ত ধারণায় বিশ্বাক করেই প্রাণ হারাতে হল প্রায় ৭০০ মানুষকে। 

এদিন ইরান সরকারের তরফে জানানো হয়েছে, অ্যালকোহল পান করলেই নাকি করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পাওয়া যাবে, এই যুক্তিতে বিশ্বাস করে আগামী ২০ ফেব্রুয়ারি থেকে ৭ এপ্রিল পর্যন্ত এদেশে প্রাণ হারিয়েছেন ৭০০ জন মানুষ। এপ্রসঙ্গে ইরান সরকারের তরফে একটি বিবৃতি পেশ করা হয়। সেখানে বলা হয়, মিথানল অ্যালকোহল পান করার ফলে বহু মানুষের মৃত্যু হচ্ছে। কিন্তু মারণ ভাইরাসের করাল গ্রাস থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য সাধারণ মানুষ তা পান করছেন। সরকারের তরফে বহুবার এই ক্ষতিকারক দিকের কথা জানান হয়েছে। এমনকি অ্যালকোহল পানে করোনা মুক্তি ঘটবে, সেবিষয়টিও ভুঁয়ো বলেই বহুবার জানিয়েছে প্রশাসন। 

করোনার জেরে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে চলছে লকডাউন। এই পরিস্থিতিতে প্রয়োজনীয় পণ্য ও পরিষেবা ছাড়া বন্ধ প্রায় সমস্ত  কিছুই। এই অবস্থায় সব থেকে বেশি সমস্যায় পড়েছেন মদ্যপ্রেমীরা। মদের দোকান না খোলায়, যাদের নিয়মিত পানের অভ্যাস তাঁদের প্রাণ প্রায় যায় যায়। ইরানের ছবিটাও ঠিক একইরকম। এই অবস্থায় আবার রটছে, মদ পান করলেই করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে। কিন্তু এই ধারনার কোন বৈজ্ঞানিক ভিত্তি নেই। ইরানে এখনও পর্যন্ত মিথানল অ্যালকোহল পান করার জেরে অসুস্থ ৫০১১ জন। এদিন এমনটাই দাবি করেছেন ইরান স্বাস্ত্য দফতরের মুখপাত্র কিয়ানুশ জাহাপর। তিনি আরও বলেন ওই অসুস্থদের মধ্যে দৃষ্টিশক্তি হারিয়ে ফেলেছেন প্রায় ৯০ জন। এখনও অনকেই দৃষ্টিশক্তি হারাতে পারেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। 

 

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons