করোনা থেকে মুক্তি পেতে কি প্লাজমা থেরাপি কাজে আসতে পারে? কি বলছে গবেষণা?

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : করোনাভাইরাস চিকিৎসায় কি নতুন দিশা দেখা দিল? বিশেষজ্ঞরা স্পষ্টভাবে কিছু না জানালেও এখনও পর্যন্ত প্লাজমা থেরাপিতে ভারতে কয়েকজন করোনাভাইরাস আক্রান্তের শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে।

সম্প্রতি দিল্লির সাকেতের একটি বেসরকারি হাসপাতাল করোনা চিকিৎসায় প্লাজমা থেরাপির প্রয়োগ করেছিল। তারপর ওই ব্যক্তিকে ভেন্টিলেটর থেকে বের করে আনা হয়েছিল। তাঁর পরপর দুটি টেস্টে করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছিল। তারপর রাজধানীর আরও কয়েকজন করোনা আক্রান্তের চিকিৎসায় প্লাজমা থেরাপি প্রয়োগ করা হয়েছে। দিল্লির স্বাস্থ্যমন্ত্রী সত্যেন্দর জৈন বলেন, দিল্লিতে ৬জন করোনা আক্রান্তের ক্ষেত্রে প্লাজমা থেরাপি ব্যবহার করা হয়েছে। চারদিন আগে চারজনের ক্ষেত্রে সেই থেরাপি ব্যবহার করা হয়েছিল। ওই চারজন প্রায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন। তাঁদের প্রত্যেকেরই অবস্থা জটিল ছিল। আর সেই ফলাফল অত্যন্ত আশাব্যঞ্জক।’

পাশাপাশি, দিল্লির এইমস ও ইনস্টিটিউট অফ লিভার অ্যান্ড বিলিয়ারি সায়েন্সে পরীক্ষামূলকভাবে প্লাজমা থেরাপি শুরু হয়েছে।এছাড়াও শুক্রবার থেকে লখনউয়ের কিং জর্জ মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় এবং শনিবার থেকে কর্নাটকের একটি হাসপাতালেও প্লাজমা থেরাপির ট্রায়াল শুরু হয়েছে।

এদিকে, রাজস্থানের এসএমএস হাসপাতালে গুরুতর করোনা আক্রান্তের ক্ষেত্রে প্লাজমা থেরাপি প্রয়োগের তোড়জোড় চলছে। এসএমএস হাসপাতালের ব্লাড ব্যাঙ্ক ইনচার্জ সুনীতা বুনদাস বলেন, ‘প্রতিষেধক বা অ্যান্টিভাইরাসের অনুপস্থিতিতে জটিল করোনা আক্রান্ত রোগীর চিকিৎসায় এটি কার্যকরী হতে পারে এবং মৃত্যুর হার কমতে পারে।’

এসএমএস হাসপাতালের মেডিসিনের অধ্যাপক রমন শর্মা জানান, ১৯১৮ সালে স্প্যানিশ ফ্লুয়ের সময় প্লাজমা থেরাপির প্রয়োগ করা হয়েছিল। ফলে মৃত্যুর হার ২০ শতাংশ কমেছিল। তবে সুনীতা জানান, , ‘থেরাপিটি এখনও ট্রায়াল পর্যায়ে রয়েছে। তা করোনা রোগীদের সুস্থ করে তুলবে কিনা, তা এখনই নিশ্চিতভাবে বলা যাবে না। তবে এই থেরাপিতে আশানুরূপ ফলাফল দেখা গিয়েছে।’

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons