৭৬ দিন পর উহানে উঠল লকডাউন, কয়েকশো বিয়ের আবেদন পড়তেই ‘বিস্ফোরণ’ অ্যাপে

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : বর্তমানে বিশ্ববাসীর মনে আতঙ্কের সৃষ্টি করেছে করোনা ভাইরাস। আর এই মারণ ভাইরাসের জেরে ভালোবাসাতেও ইতি টানতে বাধ্য হয়েছেন অনেকে। করোনার আঁতুড়ঘর উহানে এতদিন চলছিল মৃত্যুমিছিল। অনেকে যেমন গৃহবন্দি থাকার কারনে নিজের প্রাণের মানুষকে হারিয়েছেন তেমনই অনেকের প্রিয়জন করেনার বলি হয়েছেন। তবে চারিদিকে মৃত্যুর হাতছানির মধ্য়েও কোথাও যেন জীবন্ত থেকে গেছে বহু ভালোবাসা। আর ঠিক সেকারনে লকডাউন উঠতেই বিয়ের অ্যাপে শুরু হল বিয়ের আবেদন জানানোর ধুম। 

করোনার আঁতুড়ঘর উহান মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছিল। সংক্রমণ রুখতে সেখানে ৭৬ দিনের জন্য লকডাউন রাখা হয়। শহর জুড়ে এতদিন কেবলই ছিল স্তব্ধতা। কিন্তু করোনার প্রকোপ কমতেই বুধবার তুলে দেওয়া হয় লকডাউন। তারপরেই Alipay নামে সেখানকার একটি App-এ জমা পড়তে শুরু করে বিয়ের আবেদন। মাত্র দু’দিনে ওই অ্যাপে ৩০০-এর বেশি বিয়ের আবেদন জমা পড়েছে বলে জানানো হয়েছে ওই অ্যাপ কোম্পানির তরফে। শুধুমাত্র তাই নয়, লকডাউন ওঠার পর এই অ্য়াপটি এতবার ভিজিট করা হয় যে, তাতে নানা ধরেনের সমস্যাও হয়। এবিষয়ে ওই কোম্পানির তরফে জানানো হয়েছে, ‘উহানের বিয়ের আবেদনের অ্যাপ এতবার ভিজিট করা হয়েছে। যার ফলে অ্যাপটি সাময়িকভাবে কাজ করা বন্ধ করে দেয়। তবে সিস্টেমটি ভেঙে পড়েনি, তবে তা খুব স্লো হয়ে যায়। সেটি রিফ্রেশ করতে বেশ কিছুটা সময় লেগে যায়।’ 

মারণ ভাইরাস করোনার জেরে গত ফেব্রুয়ারি ও মার্চে কোনও বিয়ে হয়নি উহানে। Alipay App-এ চলথে থাকে আবেদনের পালা। প্রথমদিকে সাময়িকভাবে সমস্যার জন্য অ্যাপটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েও পরে আবার তা চালু করা হয়। মৃত্যুমিছিলের পর প্রেমিক যুগলদের ভালোবাসার দিন ফিরিয়ে দিতে বেশ উৎসাহিত ওই অ্যাপ কোম্পানিও। তাই বিয়ের আবেদন অনুযায়ী তারা চেষ্টা করছে তাঁদের চার হাত এক করার। তবে এক্ষেত্রে রয়েছে একটি শর্ত। যেমন আবেদনের সাথে বর-কনে যে করোনা মুক্ত তার সার্টিফিকেট দিতে হবে। 

Alipay নামে এউ অ্যাপ দাবি করেছে, আগে এই অ্যাপে বেশি করা হত বিবাহবিচ্ছেদের আবেদন। কিন্তু করোনার পরে তা একেবারে অন্য মোড় নিল। 

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons