‘ভারতের সাংস্কৃতিক পরিমন্ডলে এক অপূরণীয় ক্ষতি’, সৌমিত্রের প্রয়াণে নরেন্দ্র মোদী

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : অনুরাগীদের এত প্রার্থনা, চিকিৎসকদের হাজারো চেষ্টা সত্ত্বেও আর ফিরে এলেন না ফেলুদা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় । বাঙালি হারালো তাঁর ‘আইকনিক হিরো’কে। দীপাবলির মাঝেই নিভে গেল আলো। ফিল্মি কেরিয়ারে মোট ৩০০টিরও বেশি ছবি করেছেন তিনি। শুধু বাংলা সিনেজগৎ-ই নয়, ভারতীয় বিনোদনজগতে তাঁর যা অবদান, তা সম্ভবত কয়েকটি শব্দে ব্যাখ্যা করা অসম্ভবপর। পাশ্চাত্যের আঙিনাতেও সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের কাজ প্রশংসা কুড়িয়েছে। সেই মহান অভিনেতার প্রয়াণে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী , রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ-সহ অন্যান্য রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরাও। আজ সন্ধে ৬টা থেকে সাড়ে ৬টা নাগাদ তাঁকে গান স্যালুটে বিদায় জানানো হবে, ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়।

টুইটারে বাংলা, হিন্দি ও ইংরেজি- মোটি ৩টি ভাষায় শোকবার্তা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। “শ্রী সৌমিত্র চট্টোপাধায়ের প্রয়াণ চলচ্চিত্র জগৎ, পশ্চিমবঙ্গ-সহ ভারতের সাংস্কৃতিক পরিমন্ডলে এক অপূরণীয় ক্ষতি। তাঁর কাজের মধ্যে বাঙালির চেতনা, ভাবাবেগ ও নৈতিকতার প্রতিফলন পাওয়া যায়। তাঁর প্রয়াণে আমি শোকাহত। শ্রী চট্টোপাধ্যায়ের পরিবার ও অনুরাগীদের সমবেদনা জানাই। ওঁ শান্তি”, টুইট করলেন মোদী।

রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দও শ্রদ্ধা জানিয়েছেন। “ভারতীয় চলচ্চিত্র জগৎ এক লেজেন্ডারি অভিনেতাকে হারাল। সত্যজিৎ রায়ের অনন্য সব সৃষ্টি এবং ‘অপু’ ট্রিলজির জন্য ভারতীয় সিনেদর্শক তাঁকে চিরকাল মনে রাখবে। অভিনয়জগতে তাঁর অবদান অনস্বীকার্য। অসামান্য অভিনয় দক্ষতাই তাঁর কাছে দাদাসাহেব ফালকে, পদ্মবিভূষণ, লেজিওন দি অনার-এর মতো অসংখ্য পুরস্কার এনে দিয়েছে তাঁকে। তাঁর পরিবার, বিশ্বজোড়া অনুরাগীকূল ও বিনোদন ইন্ডাস্ট্রির প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি”, টুইট করেছেন রাষ্ট্রপতি।

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons