ভোররাতে শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করলেন অভিনেতা তথা তৃণমূল সাংসদ তাপস পাল

TMC star candidate Tapas Pal at his residence in Kolkata--Salil Bera

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : প্রয়াত অভিনেতা তাপস পাল। বাংলা সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেতা মঙ্গলবার ভোরে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মুম্বইয়ের এক বেসরকারি হাসপাতালে বেশ কিছুদিন ধরেই ভর্তি ছিলেন অসুস্থ অভিনেতা। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬১ বছর। তাঁর মৃত্যুর খবর সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন প্রয়াত অভিনেতার স্ত্রী নন্দিনী পাল। বাণিজ্যনগরীতে মেয়ে সোহিনীর সঙ্গে দেখা করতে যান তিনি। আর শহরে ফেরা হলো না একদা তৃণমূলের কৃষ্ণনগরের সাংসদের। ১৯৫৮ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর হুগলির চন্দননগরে জন্ম। ছোটবেলা থেকেই অভিনয়ের প্রতি আগ্রহ ছিল তাঁর।

 

সূত্রের খবর, হৃদরোগে আক্তান্ত হয়ে তাঁর মৃত্যু হয়। তরুণ মজুমদার পরিচালিত ‘দাদার কীর্তি’ ছবিতে মাত্র ২২ বছর বয়সে অভিনয়ের মাধ্যমে অভিনয় জগতে পা রাখেন তিনি। শোকস্তবদ্ধ শিল্পী মহল।

এরপর ‘গুরুদক্ষিণা’, ‘সাহেব’, ‘ভালবাসা ভালবাসা’ তাঁর হিট ছবিরগুলির মধ্যে অন্যতম। পরিবার সূত্রে খবর, দীর্ঘদিন ধরে স্নায়ুর রোগে ভুগছিলেন এই অভিনেতা। কথা বলা ও চলা-ফেরায় সমস্যা ছিল। ১ ফেব্রুয়ারি বান্দ্রার হাসপাতালে ভরতি হওয়ার পর থেকেই তিনি ভেন্টিলেশনে ছিলেন। ৬ ফেব্রুয়ারি ভেন্টিলেশন থেকে বের করা হয়।

মঙ্গলবার ভোররাতে ফের অসুস্থ হয়ে পড়েন তাপস পাল। রাত ৩টে ৩৫ মিনিটে তাঁর মৃত্যু হয়। ‘সাহেব’ ছবির জন্য তিনি ফিল্ম ফেয়ার পুরস্কার পান। বাংলার পাশাপাশি তাপস পাল অভিনয় করেছেন হিন্দি ছবিতেও। মাধুরী দীক্ষিতের বিপরীতে অভিনয় করেন ‘অবোধ’ ছবিতে। ২০০৯-এ তৃণমূলের টিকিটে কৃষ্ণনগর থেকে জিতে সাংসদ হয়েছিলেন তিনি।

মঙ্গলবার সন্ধ্যে ৫.৫৫ এর বিমানে করে মুম্বই থেকে কলকাতায়  মরদেহ নিয়ে আসা হবে। এরপর আর বাঙুর হাসপাতালের পাশে , গল্ফ ক্লাব রোডের বাসস্থানে নিয়ে ‌যাওয়া হবে। আজ সারারাত পিস হাভেনে থাকবে দেহ।  আগামিকাল সকাল ১১টা নাগাদ রবীন্দ্র সদনে তার দেহ রাখার পর শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে।

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons