সিএমআরআই চিকিৎসক নিগ্রহ কান্ডে দোষীর শাস্তি চাই, দাবি নির্মল মাজির

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : এনআরএস-এর পর এবার প্রসূতি মৃত্যুতে ফের চিকিৎসক নিগ্রহের অভিযোগ উঠল মৃতার পরিবারের বিরুদ্ধে। সিএমআরআই-এর এই ঘটনার পরেই নিন্দায় সরব হয়েছে চিকিৎসক মহল।

প্রসূতি মৃত্যুতে ডাক্তারের গায়ে ফের হাত তুললেন রোগীর আত্মীয়রা। এবিষয়ে এদিন মুখ খললেন এসএসকেএম-এর রোগীকল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান নির্মল মাজি। তিনি বলেন,  “একবালপুরের একটি বেসরকারি নার্সিংহোমে ডাক্তারের ওপর চড়াও হয়ে প্রকাশ্যে চড় মারার ঘটনা অব্যন্ত মর্মান্তিক। খুবই দুঃখজনক ব্যাপার। যে মানুষটা কর্তব্যরত চিকিৎসক, সুশীল সমাজে তাঁর দোষ-গুণ বিচার হবে! সেটা বিচারবিভাগীয় জায়গায় বিচার হতে পারে। পশ্চিমবঙ্গ মেডিক্যাল কাউন্সিলে বিচার হতে পারে। হাসপাতালের দোষ-গুণ হেলথ রেগুলেটরি কমিশনে বিচার হতে পারে। বিচার করার জন্য অনেক জায়গা রয়েছে। কিন্তু ওইভাবে প্রকাশ্যে জনসম্মুখে কর্মরত চিকিৎসকের উপর এই ধরনের হামলা, চড় মারা থেকে শুরু করে সংঘবদ্ধভাবে হামলা, এ জিনিস কোনও সভ্য সমাজের মানুষ মেনে নিতে পারে না। আমি এর তীব্র নিন্দা করছি। ধিক্কার জানাচ্ছি। প্রকৃত দোষীর সিসিটিভি ফুটেজ রয়েছে। পুলিসের উপস্থিত রয়েছে। প্রকৃত দোষীর উপ‌যুক্ত শাস্তি চাইছি।”

বৃহস্পতিবার সিএমআরআই প্রসূতি মৃত্যুর ফলে চিকিৎসক নিগ্রহের ঘটনা আরও একবার উষ্কে দিয়েছে এনআরএস কান্ডকে। ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই সরব হন আইএমএ সভাপতি শান্তনু সেনও। নিজের ক্ষোভ উগরে দিয়ে তিনি এদিন বলেন, এই ধরনের ঘটনা ঠেকাতে হলে নতুন আইন আনতে হবে। কিন্তু এবিষয়ে কেন্দ্রের কোন খেয়ালই নেই। এ ঘটনা দুঃখজনক।

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার সাতসকালে পিঙ্কি ভট্টাচার্য নামে এক প্রসূতি মৃত্যু ঘিরে একবালপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ধুন্ধুমার  বেঁধে ‌যায়। চিকিৎসকের বিরুদ্ধে ওঠে গাফিলতির অভিযোগ। বিক্ষোভে ফেটে পড়ে মৃতার পরিবারের লোকেরা। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের তরফে পাল্টা দাবি করা হয়, বারবার যোগাযোগ করা সত্ত্বেও হাসপাতালে  আসতে দেরি করেন রোগীর পরিবারের লোকজন। ‌যখন তাঁরা হাসপাতেলে আসেন সেইসময়ে উপস্থিত ছিলেন চিকিৎসক, হঠাৎ করেই তাঁর উপর চড়াও হন মৃতার আত্মীয়রা। এরপরই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের তরফে একটি সিসিটিভি ফুটেজ প্রকাশ করা হয়, ‌যেখানে একজন চিকিৎসককে প্রকাশ্যে চড় মারাতে দেখা ‌যায় মৃতার পরিবারের উত্তেজিত এক আত্মীয়কে। তার পরেই চিকিৎসক নিগ্রহের ঘটনার বিরুদ্ধে সরব হয় সমগ্র চিকিৎসা মহল।

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons