সীমান্তে বাড়ছে ভারত-চিন উত্তেজনা, ট্যুইটে মধ্যস্থতার প্রস্তাব ট্রাম্পের

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : লাদাখ সীমান্তে ক্রমেই শক্তি বাড়াচ্ছে চিন। ভারতের তরফেও তাদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে একাধিক পদক্ষেপ গ্রহন করছে। দফায় দফায় করছে বৈঠক। এহেন যুদ্ধের পরিস্থিতির মুহূর্তে সংঘাত প্রশমিত করতে মধ্যস্থতার প্রস্তাব দিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এগিন ট্যুইট করে ভারত-চিন উত্তেজনা কমাতে মীমাংসা করার কথাও জানান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

বুধবার একটি ট্যুইট করে ট্রাম্প লেখেন, “আমরা ভারত ও চিন দু’দেশকেই জানিয়েছি যে তাদের মধ্যে সীমানা নিয়ে চলা বিবাদে মধ্যস্থতা করতে রাজি এবং সক্ষম আমেরিকা।” বিশেষজ্ঞদের মতে, করোনা আবহে ভারত-চিন যুদ্ধ সংগঠিত না হয় তাই এহেন মধ্যস্থতার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। বিশ্বে এই মুহূর্তে করোনা পরিস্থিতির জন্য একাধিকবার চিনের দিকে আঙুল তুলতে দেখা গিয়েছে ট্রাম্পকে। এবার তাই ভারত-চিন যুদ্ধের আবহে ভারতের পাশে থেকে চিন আগ্রাসন ঠেকাতে চাইছে আমেরিকা।

প্রসঙ্গত, গত কয়েকদিন ধরেই লাদাখ সহ এলএসি-তে ভারত ও চিনের মধ্যে উত্তেজনা অব্যাহত রয়েছে। আর তা যে একপ্রকার অশনি সংকেত বহন করছে তাও এদিন খানিকটা ইঙ্গিত দেয় সাউথ ব্লক। প্রতিরক্ষা বিশেষজ্ঞদের একাংশের মতে, খুব শীঘ্রই যদি এই উত্তেজনা যদি না কমে তাহলে যুদ্ধ একেবারেই আসন্ন। ইতিমধ্য়েই চিনের বিরুদ্ধে যুদ্ধে নামার প্রস্তুতি শুরু করেছে ভারত। গালওয়ান থেকে ২০০ কিমি দূরে তিব্বতের একটি বিমান ঘাঁটিতে শুরু হয়েছে ব্যপক নির্মাণকাজ। সেখানে ফাইটার জেট মোতায়েন করা হয়েছে চিনের তরফে। যার ফলে যুদ্ধ পরিস্থিতি আরও ঘনিভূত হচ্ছে।

 

 

Inform others ?
Share On Youtube
Show Buttons
Share On Youtube
Hide Buttons
Wordpress Social Share Plugin powered by Ultimatelysocial
Facebook
YouTube