লকডাউন পরিস্থিতিতেই পথে নেমে গরিবদের হাতে খাবার তুলে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক :  দেশজুড়ে চলছে ২১ দিন ব্যাপী লকডাউন পরিস্থিতি। সকলকেই বারে বারে ঘরের মধ্যে থাকার জন্য অনুরোধ জানানো হচ্ছে প্রশাসনের তরফে। দোকানপাঠ খোলা থাকলেও বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই মজুত নেই প্রয়োজনায় জিনিসপত্রের। তবে এই পরিস্থিতিতে প্রকোট হয়েছে আরও একটি সমস্যা। লকডাউনের জেরে বন্ধ রয়েছে সরকারি-বেসরকারি সমস্ত পরিবহন ব্যবস্থা থেকে শুরু করে সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন অফিস, কল কারখানা। যার জেরে রীতিমতো মাথায় হাত পড়েছে দিন আনা দিন খাওয়া মানুষগুলোর। কিন্তু লকডাউনের প্রথম দিন থেকে সেই সমস্ত মানুষগুলোর পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। এবার তাঁদের সাহায্য করতে নিজে রাস্তায় নামলেন তিনি। 

শুক্রবার নবান্নে সংবাদিক বৈঠক সেরেই কালীঘাট ও আলিপুর চত্বরে নিজেই ফুটপাতবাসী ও রিকশাওয়ালাদের চাল,ডাল বিলি করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন মুখ্যমন্ত্রীর সাথে ছিলেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম, কলকাতার পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মা, এবং স্থানীয় কাউন্সিলররা। সেখানে মুখ্যমন্ত্রী নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করার পাশাপাশি ‘সোশ্যাল ডিস্ট্যান্সিং’-এর গুরুত্বও বুঝিয়েছেন তাঁদের।

আগেই মমতা বন্দোপাধ্যায় জানিয়ে দিয়েছিলেন বাড়িতে বসে তাঁর পক্ষে কাজ করা সম্ভব নয়। সেই মর্মে এর আগেও হাসপাতালে করোনা সংক্রমণ রুখতে কীভাবে সেখানে স্বাস্থ্যকর্মীরা কাজ করছেন তা পরিদর্শন করতে রাজ্যের ৬ টি হাসপাতালে পৌঁছান মুখ্যমন্ত্রী। এমনকি তা নিয়ে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের কটাক্ষেরও শিকার হন তিনি। তবে সেকথায় কোনরকম আমল না দিয়েই শুক্রবার ফের দুস্থ মানুষগিলোর মুখে দুমুঠো অন্ন তুলে দিতে পথে নামলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন প্রায় ৩০০ জন গরিব মানুষের হাতে শুকনো খাবার তুলে দেন তিনি। 

 

 

 

 

 

 

 

 

 
 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 
Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons