বাতিল ৪৯টি লোকাল ট্রেন,হয়রানি যাত্রীদের

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : সোমবার থেকে সপ্তাহ জুড়ে শিয়ালদহ ডিভিশনের মেন শাখার রেল পরিষেবা ব্যাহত হতে চলেছে। পূর্ব রেলের শিয়ালদহ বিভাগের ইছাপুর ও নৈহাটি স্টেশনের মাঝে স্বয়ংক্রিয় সিগন্যাল ব্যবস্থা চালু করার জন্য গতকাল অর্থাৎ রবিবার থেকে আগামী রবিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ৩০০-র বেশি লোকাল ট্রেন বাতিল করতে চলেছে পূর্ব রেল। আজ আপ ও ডাউন মিলিয়ে মোট ৪৯টি লোকাল ট্রেন বাতিল থাকছে।

পূর্ব রেলের তথ্য অনু‌যায়ী,আজ আপ ও ডাউন মিলিয়ে ২৬টি নৈহাটি লোকাল, ১৪টি কল্যাণী সীমান্ত লোকাল, ৪টি রানাঘাট লোকাল, ৩টি নৈহাটি-রানাঘাট লোকাল ও ২টি কৃষ্ণনগর লোকাল বাতিল করা হয়েছে। একটি নৈহাটি লোকাল ও একটি নৈহাটি-বজবজ লোকাল ব্যারাকপুর পর্যন্ত চলবে। এ ছাড়াও, কলকাতা-সীতামারি এক্সপ্রেস, শিয়ালদহ-বালিয়া এক্সপ্রেস, কলকাতা-পাটনা এক্সপ্রেস, গৌড় এক্সপ্রেস, গঙ্গাসাগর এক্সপ্রেস, কলকাতা-জসিডি প্যাসেঞ্জারকে দমদম-ডানকুনি পথে ঘুরিয়ে দেওয়া হবে। এই ট্রেনগুলো যাওয়ার পথে দক্ষিণেশ্বর ও ডানকুনি স্টেশনে দাঁড়াবে।

শুক্রবার সন্ধে থেকেই এই বিষয়ে শিয়ালদহ স্টেশন থেকে ঘোষণা করা হয়েছে । যে শাখার যাত্রীরা এই ঘটনার জন্য অসুবিধার মুখে পড়বেন, সেই শাখার সব স্টেশনেই ঘোষণা চলছে। এ ছাড়া, ফেসবুক ও টুইটারের মতো সোশ্যাল মিডিয়াতেও এই খবরটি প্রকাশ করা হয়েছে বলে পুর্ব রেলসূত্রে খবর। এই সপ্তাহে আপ ও ডাউন মিলিয়ে ৭৬টি শিয়ালদহ-কল্যাণী সীমান্ত লোকাল, ১৬৪টি শিয়ালদহ-নৈহাটি লোকাল, ২৪টি শিয়ালদহ-রানাঘাট লোকাল, ১২টি নৈহাটি-রানাঘাট লোকাল, ১২টি শিয়ালদহ-কৃষ্ণনগর লোকাল বাতিল থাকবে। পূর্ব রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক নিখিল চক্রবর্তী বলেন, যাত্রী ভোগান্তি এড়ানোর ‌জন্য ‌যথেষ্ট ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

 ছুটির দিন হলেও ট্রেন বাতিল থাকার কারণে সমস্যায় পড়তে হয়েছে সাধারণ যাত্রীদের। একাধিক ট্রেনে ভিড়ও ছিল যথেষ্ট। তবে, দুপুরের পর থেকে সেই ভিড় অনেকটাই কমে যায়। সোমবার ভোর থেকেই ভিড়ের সমস্যা দেখা দিয়েছে।

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons