বাংলা জুড়ে লকডাউন, কোন কোন বিষয়ে নির্দেশিকা? বিশদে জেনে নিন

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : করোনা মোকাবিলায় দেশ জুড়ে শুরু হয়েছে সতর্কতা। এবার সেই পথে হেঁটেই সোমবার বিকেল থেকে ২৭ মার্চ পর্যন্ত লকডাউন করা হল কলকাতা-সহ সমস্ত পুরশহরগুলি। জরুরি পরিষেবা ছাড়া পাবলিক ট্রান্সপোর্ট, অফিস ও দোকানপাঠ বন্ধ থাকবে। তবে অত্যাবশ্য়কীয় পণ্য তথা ডিজেল, কেরোসিন, ন্যাপথা, সলভেন্ট খাদ্যদ্রব্য, ওষুধের দোকান, সবজি বাজার, মুদিখানা, গ্যাসের দোকান, ওষুধের দোকান, মাছ বাজার, সরকারি বাস এই সমস্ত কিছুর পরিষেবা পাবে সাধারণ মানুষ। এছাড়াও এই লকডাউনের আওতার বাইরে থাকবে অ্যাম্বুলেন্স, হাসপাতাল ও চিকিৎসা ব্যবস্থা। রবিবার রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের তরফে এই নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। একইসাথে এই নির্দেশিকা মানা না হলে তাঁদের বিরুদ্ধে আইনত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানানো হয়েছে। 

এই নির্দেশিকা অনুসারে, অটোরিকশা থেকে শুরু করে ট্যাক্সি পাবলিক ট্রান্সপোর্ট সবকিছুই বন্ধ রাখাতে হবে। তবে ছাড় দেওয়া হবে  হাসপাতাল, বিমানবন্দর, রেলস্টেশন, বাস স্ট্যান্ড থেকে যাওয়া-আসা, মালবাহী যান ও নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যকে। এছাড়াও অফিস, কারখানা, বাণিজ্য প্রতিষ্ঠান, সমস্ত দোকান এমনকি গোডাউন বন্ধ থাকবে। এছাড়া যারা বিদেশ থেকে ফিরবেন স্থানীয় স্বাস্থ্য দফতরের নির্দেশিকা মতো তাঁদের সকলকেই কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। খুব প্রয়োজন ছাড়া যাতে কেউ বাড়ির বাইরে না বেরোয় সে বিষয়েও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। 

তবে আদালত, সংশোধনাগার, স্বাস্থ্য পরিষেবা, সশস্ত্র বাহিনী, আধা সামরিক বাহিনী, পুলিশ, বিদ্যুত্‍‌ পরিষেবা, জল, দমকল, ইন্টারনেট, টেলিকম, সিভিল ডিফেন্স, জরুরি পরিষেবা,ব্যাঙ্ক, এটিএম, ডাক বিভাগ ও আইটি ইত্যাদি বিভাগের ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া হয়েছে। একইসাথে খাবার জিনিস, হোম ডেলিভারি, সবজির দোকান, মুদির দোকান, তেলের এজেন্সি, চশমার দোকান, সংবাদমাধ্যম ও সোশ্যাল মিডিয়া ইত্যাদি সমস্ত পরিষেবার ক্ষেত্রে কোন নিষেধাজ্ঞা জারি হয়নি। 

 

 

 

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons