ফের মুখ পুড়লো পশ্চিমবঙ্গ মধ্যশিক্ষা পর্ষদের, এত কিছু পদক্ষেপ নিয়েও হলনা শেষ রক্ষা!

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : বাড়তি নিরাপত্তা সত্ত্বেও মাধ্যমিকের প্রথমদিনেই প্রশ্ন বিভ্রাট। পরীক্ষা শুরু কিছুক্ষণের মধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ল প্রথম ভাষা বাংলার প্রশ্নপত্র। 

২০১৯-এর মাধ্যমিকে লাগাতার প্রশ্নফাঁসে লজ্জা‌য় পড়তে হয়েছিল মধ্যশিক্ষা পর্ষদকে। সেই কারণে চলতি বছরের মাধ্যমিকে প্রশ্নফাঁস রুখতে একাধিক পদক্ষেপ নিয়েছিল পর্ষদ।

বিভিন্ন জেলার ৪২ টি ব্লকে বন্ধ রাখা হয়েছে ইন্টারনেট পরিষেবা। কিন্তু তা সত্ত্বেও এবারও প্রথম ভাষা বাংলার পরীক্ষা শুরুর কিছুক্ষণের মধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে একটি প্রশ্নপত্র।

যার ফলে স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে পর্ষদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে। যদিও এবিষয়ে এখনও মধ্যশিক্ষা পর্ষদের তরফ কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি।

এবছর মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১০ লক্ষ ১৫ হাজার ৮৮৮ জন। গতবারের থেকে প্রায় ৩৩ হাজার কম। এবার পরীক্ষা কেন্দ্রগুলিতে কড়া নিরাপত্তার কথা বলা হয়েছিল। প্রধান শিক্ষকের ঘরে নয়, ছাত্রছাত্রীদের সামনে খাম খোলার কথা জানানো হয়েছিল। পরীক্ষা কেন্দ্রগুলিতে মোবাইল ফোন নিষিদ্ধ করার পাশাপাশি স্মার্ট ঘরি পরার ওপরেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। পরীক্ষা শুরুর আগে শিক্ষকদে মোবাইল কিংবা স্মার্ট ঘড়ি স্কুলের প্রধান শিক্ষকের কাছে জমা দেওয়ার কথা বলা হয়েছিল।

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons