প্রেমের ‘চোটে’ স্বামীকে খুন!

Woman hand holding big knife. Aggressive woman.

প্রেমের ফাঁদ পাতা ভুবনে কে কোথা ধরা পড়ে, কে জানে ! বেশ প্রেম করছিল দু’জনে, বাঁধ সাধলো স্বামী ! আর রক্ষে করে কে ? প্রাণ হারাতে হল স্বামীকে । বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের জেরে প্রেমিক ও স্ত্রী মিলে স্বামীকে খুন করে । তাতেই শেষ নয়! এ যেন পুরো সিনেমার গল্প ।খুন করে স্বামীর দেহ সেপটিক ট্যাংকে ফেলে রাখার অভিযোগ উঠেছে । নদীয়ার হরিণঘাটা থানার মোল্লা বেলিয়া এলাকার হাড়হিম করা ঘটনা । মৃত বছর ৪৫ এর আজিজুল মন্ডল । ঘটনা ঘটেছে তিন থেকে চার মাস আগে, সামনে আসে গত পরশুদিন । আজিজুলের বাড়িতে তাঁর বড় মেয়ে আসে শশুর বাড়ি থেকে । তখন খোঁজখবর জিজ্ঞাসাবাদ করতেই মেজো মেয়ে কান্নায় ভেঙে পড়ে সব ঘটনা বলে , জানায় সে দেখেছে তার বাবাকে তার মা এবং ‘ওই কাকু’ (প্রেমিক) মিলে ধারালো বটি দিয়ে মেরেছে ।

এরপর হরিণঘাটা থানায় গিয়ে দুই মেয়ে ঘটনা বললে হামিদা বিবিকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ । দীর্ঘ জেরার পর গতকাল রাত্রিবেলায় ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে দেহ তোলা হয় সেফটি ট্যাংক থেকে। পরিবার সূত্রে জানা যাচ্ছে হামিদা বিবির সঙ্গে পেশায় সবজি বিক্রেতা সমীর ঘোষের বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক গড়ে ওঠে । এরপর ওই ব্যক্তিকে সে নিজের বাড়িতে ভাড়াটিয়া হিসেবে থাকতে দেয় বলে অভিযোগ । তারপরে এই নিয়ে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে প্রায়শই অশান্তি হত, আর সেই অশান্তি গড়িয়েছে একেবারে খুনের পর্যায়। গোটা বিষয়টি সামনে আসতেই পলাতক মহিলার প্রেমিক সমীর ঘোষ নামে ঐ ব্যক্তি। ইতিমধ্যেই হরিণঘাটা থানার পুলিশ তদন্ত শুরু করে তার খোঁজ চালানোর চেষ্টা করছে।

নিউজ টাইম চ্যানেলের খবরটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন।
Inform others ?
Share On Youtube
Show Buttons
Share On Youtube
Hide Buttons
Wordpress Social Share Plugin powered by Ultimatelysocial
Facebook
YouTube