চরম বিশৃঙ্খলা সি এম আর আই হাসপাতালে, চিকিত্‍‌সককে আঘাত

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : চিকিত্সার গাফিলতিতে প্রসূতি মৃত্যুর অভিযোগে ধুন্ধুমার বাঁধল একবালপুরের সি এম আর আই হাসপাতালে। মৃতা প্রসূতির আত্মীয় চিকিত্সককে চড় মারেন । হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তারা বহিরাগত ঢুকিয়ে মৃতের আত্মীয়দের ঘাড়ে দোষ চাপানোর চেষ্টা করছে।
পিঙ্কির পরিবারের অভিযোগ, বৃহস্পতিবার ভোরে হাসপাতাল থেকে বাড়ির লোককে খবর দেওয়া হয় রোগীর অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাঁকে আইসিইউ-তে রাখা হয়েছে। পরিবারের লোকজন হাসপাতালে গিয়ে দেখেন মৃত্যু হয়েছে পিঙ্কির। এরপরই হাসপাতালের বিরুদ্ধে চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ তুলে ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে মৃতার পরিবার। আলিপুর থানায় অভিযোগ জানানো হয়।

মৃতার নাম পিঙ্কি ভট্টাচার্য। বয়স ৩০ বছর। তিনি হাওড়ার তাঁতি পাড়ার বাসিন্দা ছিলেন। প্রসবযন্ত্রণা নিয়ে গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মোমিনপুরের সিএমআরআই হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি। বুধবার সকালে সিজার করে পুত্র সন্তানের জন্ম দেন। পরিবারের দাবি, মা ও ছেলে দুজনেই সুস্থ-স্বাভাবিক ছিল বলে জানানো হয়েছিল হাসপাতালের তরফে। এমনকি বিকেলে পিঙ্কির সঙ্গে কথাবার্তাও বলেন আত্মীয়রা।

মৃতার স্বামী তপেন ভট্টাচার্যের অভিযোগ, সম্পূর্ণ গাফিলতিতে মৃত্যু হয়েছে তাঁর স্ত্রীর। হাসপাতালের ভিতরে দফায় দফায় হাসপাতালের কর্মীদের সঙ্গে বচসা, কথা কাটাকাটি হয় মৃতার পরিজনদের। কর্তব্যরত চিকিৎসক বাসব মুখোপাধ্যায়কে কষিয়ে চড় মারেন মৃতার পরিবারের লোকেরা। মৃতার স্বামীর অভিযোগ, মারা যাওয়ার পর আইসিইউ-এর কর্তব্যরত দুই নার্স তাঁদের কাছে টাকা চায়।

  অন্যদিকে সি এম আর আই এর তরফ থেকে একটি প্রেস বিবৃতির মাধ্যমে জানানো হয়,
‘৩0 বছরের এক যুবতী গর্ভবতী মহিলাকে একটি শিশু প্রসবের জন্য সিএমআরআইতে আনা হয়েছিল। গতকাল সকালে তার সি-সেকশনের পরে তিনি ভাল ছিলেন এবং শিশুটি স্থিতিশীল ছিলো। আজ ভোরের দিকে তাঁর কার্ডিয়াক অ্যারেস্টে মৃত্যু হয়, হাসপাতালের তরফ থেকে সমস্তরকম ব্যবস্থা নেওয়া সত্ত্বেও.

চিকিত্সক পরিবারটির কাছে দুর্ভাগ্যজনক এই ঘটনাটি বোঝানোর চেষ্টা করেছিলেন কিন্তু বিনিময়ে পরিবারের সদস্যরা রাগ ও ক্রোধে ডাক্তারকে নির্যাতন করেন, লাঞ্ছিত করেন।

এখানেই থেমে না থেকে হাসপাতালের চত্বরে ভাঙচুর করেছেন।এটি একটি অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক ঘটনা, আমরা নিহতের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাই। তবে ডাক্তারের প্রতি শারীরিক অত্যাচার মেনে নেওয়া যায় না এবং হাসপাতালের তরফ থেকে তা সহ্য করা হবে না।’

 

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons