গাজা ভূখন্ডে ফের বিমানহানা ইজরায়েলের সেনার

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : মার্কিন হস্তক্ষেপ সত্ত্বেও গাজা ভূখণ্ডে ফের হামলা চালাল ইজরায়েল। মূলত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পেকে শান্তির প্রস্তাব দেওয়ার পরই ইজরায়েল ও প্যালেস্তাইনের মধ্যে আরও অবনতি ঘটল সম্পর্কের।

জানা গিয়েছে, জঙ্গিগোষ্ঠী হামাসের নিয়ন্ত্রণে থাকা গাজায় শনিবার বিমানহানা চালায় ইজরায়েলের সেনা। কিন্তু কেন হঠাৎ এমন হামলা! এবিষয়ে ইজরায়েলের সেনা সূত্রে জানানো হয়েছে, গাজার এই জঙ্গি ঘাটিতে জঙ্গিদের অস্ত্রভাণ্ডার থেকে শুরু করে তাঁদের প্রশিক্ষণ দেওয়ার ব্যবস্থা ও সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপের পরিকাঠামো ধ্বংস করার উদ্দেশ্যেই হামাস জঙ্গিদের একটি শিবিরে বিমান হানা চালানো হয়। তবে শুক্রবার গাজা থেকে দক্ষিণ ইজরালের সীমান্তে গোলাবর্ষণ করা হয়। ইজরায়েলের দাবি এই হামলার পেছনে রয়েছে হামাসের জঙ্গিরা। তাই জঙ্গিদের এদিন পালটা জবাব বিমানহানা চালানে হয় বলে দাবি করা হয়েছে ইজরায়েল সেনার তরফে।

প্রসঙ্গত, পশ্চিম এশিয়ায় চলতে থাকা সমস্যার স্থায়ী সমাধানের জন্য বিগত কয়েক মাস ধরে নানা সমাধান সূত্রের কথা বলেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এর জন্য রিপাবলিকান পার্টি, হোয়াইট হাউস এবং মার্কিন কংগ্রেসের একটি বড় অংশের কাছ তিনি সম্মতিও নেন। গত মাসেই আমেরিকা সফরে এসেছিলেন ইজরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু। সেখানেই যৌথ সাংবাদিক সম্মেলনে রফা সুত্র ঘোষনা করেন ট্রাম্প। তেতে ইজরায়েল-প‌্যালেস্তাইন সীমান্ত বিবাদ মিটিয়ে নেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। একইসাথে প‌্যালেস্টাইনকে স্বাধীনরাষ্ট্রকে স্বীকৃতি দেওয়ার কথাও বলা হয়। তবে ট্রাম্পের এই প্রস্তাব মানতে রাজি নয় ইজরায়েল সহ প্যালেস্তাইন।

এরই মধ্যে শনিবার গাজায় জঙ্গি হানায় ইজরায়েল সেনার বিমানহানা চালানোর ঘটনায় ফের উত্তপ্ত হল ইজরায়েল-প্যালেস্তাইন।

Inform others ?
Share On Youtube
Show Buttons
Share On Youtube
Hide Buttons
Wordpress Social Share Plugin powered by Ultimatelysocial
Facebook
YouTube