কেরলের গর্ভবতী হাতি হত্যার ঘটনায় চিহ্নিত করা হল তিন সন্দেহভাজনকে

নিউজটাইম ওয়েবডেস্ক : কেরলে বাজি ভরা আনারস খাইয়ে গর্ভবতী হাতিকে হত্যার ঘটনায় তোলপাড় দেশ। এই পরিস্থিতিতে কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন বৃহস্পতিবার জানালেন, ‘‘ন্যায়বিচার মিলবে।” এরই মধ্যে তিনজন সন্দেহভাজনকে চিহ্নিত করা গিয়েছে। বন বিভাগের এক আধিকারিকের একটি টুইট থেকে ঘটনাটি সকলের গোচরে আসে। নদীর জলে দাঁড়িয়ে হাতিটির মৃত্যুদৃশ্য দেখে ক্ষোভে ফেটে পড়েছে মানুষ। এদিন বিকেলে পিনারাই বিজয়ন টুইট করে লেখেন, ‘‘পলক্কড় জেলার এক মর্মান্তিক ঘটনায় এক গর্ভবতী হাতি তার প্রাণ হারিয়েছে। আপনারা অনেকেই একথা আমাদের জানিয়েছেন। আমি আপনাদের আশ্বস্ত করছি আপনাদের উদ্বেগ ব্যর্থ হবে না।” তিনি আরও জানিয়েছেন, ‘‘তদন্ত শুরু হয়েছে তিনজন সন্দেহভাজনের দিকে লক্ষ রেখে। পুলিশ ও বন বিভাগ যুগ্মভাবে তদন্ত করছে। জেলা পুলিশের প্রধান ও জেলার বন বিভাগের আধিকারিক আজ ঘটনাস্থলে গিয়েছিলেন। অপরাধীদের সাজা দিতে আমরা সম্ভাব্য সব পদ্ধতি অবলম্বন করব।”

এদিনই কেন্দ্রীয় পরিবেশমন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর টুইট করে জানিয়েছেন, কেন্দ্রীয় সরকার এবিষয়ে তদন্ত করবে। প্রকাশ জাভড়েকর জানিয়েছেন, সরকার হাতি-হত্যার ওই ঘটনাটিকে “গুরুত্বের সঙ্গে দেখছে।” মন্ত্রী টুইটে লেখেন, “আমরা ঘটনার যথাযথ তদন্ত করতে এবং অপরাধীকে গ্রেফতার করতে কোনও প্রচেষ্টাই বাকি রাখব না।”

প্রকাশ জাভড়েকর ঘটনাটি মলপ্পুরম জেলায় ঘটেছে বলে জানালেও প্রকৃতপক্ষে ঘটনাটি ঘটেছে পলক্কড় জেলায়।

 

Inform others ?
Show Buttons
Hide Buttons